kalerkantho

কালীগঞ্জে শিক্ষার্থী ধর্ষণের ঘটনায় মামলা, গ্রেপ্তার ২

কালীগঞ্জ (ঝিনাইদহ) প্রতিনিধি   

২২ আগস্ট, ২০১৯ ১৬:৫৫ | পড়া যাবে ২ মিনিটে



কালীগঞ্জে শিক্ষার্থী ধর্ষণের ঘটনায় মামলা, গ্রেপ্তার ২

ঝিনাইদহের কালীগঞ্জে সপ্তম শ্রেণির এক স্কুলছাত্রীকে ধর্ষণের অভিযোগে প্রিন্স হোসেন (১৯) ও নয়ন হোসেন (১৮) নামের দুই যুবককে গ্রেপ্তার করেছে পুলিশ। বুধবার রাতে উপজেলার বারবাজারের গোড়ার মসজিদসংলগ্ন শিমলে পুকুরের পশ্চিম পাড়ে এ ধর্ষণের ঘটনা ঘটে। এ ঘটনায় ধর্ষিতার পিতা আরিফ হোসেন বাদী হয়ে দুজনের নাম উল্লেখসহ অজ্ঞাত অপর একজনসহ মোট তিনজনের নামে কালীগঞ্জ থানায় মামলা করেছেন। পুলিশ ধর্ষিতা স্কুলছাত্রী উদ্ধার করে ডাক্তারি পরীক্ষার জন্য ঝিনাইদহ হাসপাতালে পাঠিয়েছে। 

থানা পুলিশ ও মামলার এজাহার সূত্রে জানা গেছে, বুধবার রাতে বারবাজার বালিকা বিদ্যালয়ের সপ্তম শ্রেণির ওই ছাত্রী হাসিলবাগ গ্রামের নিজ বাড়ি থেকে পার্শ্ববর্তী ফুফুর বাড়ি যাওয়ার পথে উক্ত স্থানে বেলাটদৌলতপুর গ্রামের আব্দুল জলিলের ছেলে প্রিন্স হোসেন তাকে জোরপূর্বক ধরে নিয়ে ধর্ষণ করে। এ সময় তার সহযোগী নয়ন হোসেন তাকে ধর্ষণে সহযোগিতা করে। মেয়েটি অজ্ঞান হয়ে গেলে পুকুর পাড়ে তাকে ফেলে রেখে ধর্ষকরা পালিয়ে যায়। 

কালীগঞ্জ থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) ইউনুচ আলী বলেন, ধর্ষণের অভিযোগে থানায় দুজনের নাম উল্লেখসহ মোট তিনজনের নামে মামলা হয়েছে। পুলিশ দুজনকে গ্রেপ্তার করেছে। তাদের আদালতের মাধ্যমে জেলহাজতে পাাঠানো হয়েছে। অপরদিকে স্কুলছাত্রীকে উদ্ধার করে ডাক্তারি পরীক্ষার জন্য ঝিনাইদহ হাসপাতালে ভর্তি করা হয়েছে। 

মন্তব্য



সাতদিনের সেরা