kalerkantho

ঠাকুরগাঁওয়ে ২ বাসের সংঘর্ষে নিহত ৩

ঠাকুরগাঁও প্রতিনিধি   

২২ আগস্ট, ২০১৯ ১৪:১৪ | পড়া যাবে ২ মিনিটে



ঠাকুরগাঁওয়ে ২ বাসের সংঘর্ষে নিহত ৩

ঠাকুরগাঁও সদর উপজেলায় ইএস ট্রাভেলস নামে নৈশ্য কোচ ও রাজু পরিবহন নামে দুটি বাসের ওভারটেক করার সময় সংঘর্ষে নিহত হয়েছে তিনজন এবং আহত হয়েছেন অন্তত ১০ যাত্রী। আহতদের মধ্যে চারজন প্রাথমিক চিকিৎসা নিয়ে বাড়ি ফিরে গেছেন এবং বাকি ছয়জন ঠাকুরগাঁও আধুনিক সদর হাসপাতালে চিকিৎসা নিচ্ছেন।

আজ বৃহস্পতিবার সকালে ১১টায় উপজেলার সালান্দর ইউনিয়নের ঠাকুরগাঁও পঞ্চগড় মহাসড়কের ডেনিশ ভুতপাড়া এলাকায় এই দুর্ঘটনা ঘটে। ঘটনার পর সে সড়কে প্রায় একঘণ্টা যানচলাচল বন্ধ থাকে। পুলিশ ও ফায়ার সার্ভিসের সদস্যরা উদ্ধার কার্যক্রম শেষ করার পর যানচলাচল স্বাভাবিক হয়। 

নিহতরা হলেন সদর উপজেলা কলেজ পাড়া এলাকার মৃত হোসেন আলীর ছেলে বাসচালক বাবুল (৪০), পঞ্চগড় টুনিরহাট এলাকার বাসিন্দা মৃত রশিদ উদ্দীনে ছেলে ঠাকুরগাঁও মুন্সিরহাট অগ্রণী ব্যাংক শাখার কর্মচারী কামরুজ্জামান বাবু (৪২) ও ঠাকুরগাঁও সদর উপজেলা নারগুণ ইউনিয়নের আব্দুল আজিজের ছেলে আবুল কালাম আজাদ (৪৮)।

ঠাকুরগাঁও সদর থানার ওসি আশিকুর রহমান ঘটনার সত্যতা নিশ্চত করেছেন। প্রত্যক্ষদর্শীদের বরাত দিয়ে তিনি জানান, বৃহস্পতিবার সকালে ঠাকুরগাঁও থেকে ও রাজু পরিবহন নামক বাসটি পঞ্চগড়ের উদ্দ্যেশে যাচ্ছিল। একই সময় ঢাকা থেকে ছেড়ে আসা ইএস ট্রাভেলস নামে নৈশ কোচটি পঞ্চগড়ের  উদ্দ্যেশে যাচ্ছিল। এ সময় সদর উপজেলার সালান্দর ভুতপাড়া এলাকায় নৈশ কোচটি দ্রুতগতিতে রাজু পরিবহনকে ওভারটেক করার সময় পেছন থেকে ধাক্কা দিয়ে নিয়ন্ত্রণ হারিয়ে খাদে পড়ে যায়। এতে ঘটনাস্থলেই নিহত হয় দুজন ও আহত হয় ১১ জন। খবর পাওয়ার পর পরই ফায়ার সার্ভিস ও পুলিশ ঘটনাস্থলে উপস্থিত হয়ে নিহত ও আহত ব্যাক্তিদের উদ্ধার করে। আহতদের উদ্ধার করে ঠাকুরগাঁও আধুনিক সদর হাসপাতালে আনা হলে সেখানে আরো একজন মারা যায়। আহতদের সদর হাসপাতালে চিকিৎসা দেওয়া হচ্ছে। পুলিশ এ বিষয়ে আইনগত ব্যবস্থা গ্রহণ করছে।

জেলা প্রশাসক ড. কে এম কামরুজ্জামান সেলিম এ ঘটনায় দুঃখ প্রকাশ করে জানান, চালকদের অসতর্কতার কারণে এমন মর্মান্তিক দুর্ঘটনা ঘটেছে। দোষী চালকদের বিরুদ্ধে প্রশাসনের পক্ষ থেকে আইনি ব্যবস্থা গ্রহণ করা হবে।  

মন্তব্য



সাতদিনের সেরা