kalerkantho

জন্মাষ্টমী পরিষদের সংবাদ সম্মেলন

সংখ্যালঘুদের জন্য আলাদা মন্ত্রণালয় ও কোর কমিটি দাবি

নিজস্ব প্রতিবেদক, চট্টগ্রাম   

২২ আগস্ট, ২০১৯ ০২:৪১ | পড়া যাবে ২ মিনিটে



সংখ্যালঘুদের জন্য আলাদা মন্ত্রণালয় ও কোর কমিটি দাবি

সংখ্যালঘুদের জন্য আলাদা মন্ত্রণালয় ও কোর কমিটি গঠনের দাবি জানিয়েছে শ্রীশ্রী জন্মাষ্টমী উদযাপন পরিষদ বাংলাদেশ। গতকাল বুধবার সকালে চট্টগ্রাম প্রেস ক্লাবে সংবাদ সম্মেলন করে পরিষদ এ দাবি জানায়।

আগামীকাল শুক্রবার সনাতন ধর্মাবলম্বীদের অন্যতম প্রধান ধর্মীয় উত্সব জন্মাষ্টমী উপলক্ষে এই সংবাদ সম্মেলনের আয়োজন করা হয়। এতে জন্মাষ্টমী উদ্যাপন পরিষদের কেন্দ্রীয় কমিটির পক্ষ থেকে ১১ দফা দাবি তুলে ধরা হয়। এ ছাড়া সামপ্রদায়িক সন্ত্রাসকে ‘মানবতাবিরোধী অপরাধ’ হিসেবে গণ্য করে বিশেষ ট্রাইব্যুনালে বিচারেরও দাবি তুলেছে পরিষদ।

সংবাদ সম্মেলনে ‘নিরাপত্তা ও সম-অধিকার’ রক্ষায় জাতীয় পর্যায়ে কোর কমিটি গঠনের দাবির কথা জানান পরিষদের নেতারা। 

এর আগে লিখিত বক্তব্যে পাঠ করেন সংগঠনের সাধারণ সম্পাদক বিমল কান্তি দে। তিনি বলেন, ‘মাতৃভূমি বাংলাদেশে মানসম্মান নিয়ে শান্তিতে সম-অধিকারসহ বসবাস করার যে প্রত্যাশা ও অধিকার তা নিশ্চিত করার আবেদন জানাচ্ছি। আমরা আন্তরিকভাবে চাই আন্তর্জাতিক সমাজে বাংলাদেশের ভাবমূর্তি আরো উজ্জ্বল হোক। আমরা নিরাপত্তা চাই, সম-অধিকারে বাঁচতে চাই।’

এক প্রশ্নের জবাবে পরিষদের সাবেক সভাপতি ও রাউজান পৌরসভার মেয়র দেবাশীষ পালিত বলেন, ‘বাংলাদেশ অসামপ্রদায়িক চেতনার দেশ। এই দেশে আমরা সবাই মিলেমিশে বসবাস করি। কিন্তু মাঝে মধ্যে দুষ্কৃতকারীরা বৌদ্ধ বিহার, গির্জা ও মঠ-মন্দির ভাঙচুর করে, সামপ্রদায়িক উসকানি দেয়। সেই ঘটনাগুলো যাতে না ঘটে অথবা কোথাও ঘটলে সরকারের সংশ্লিষ্ট পর্যায়ে যেন দ্রুত বার্তা পৌঁছে দেওয়া যায় সে জন্য আমরা জাতীয় পর্যায়ে ১১ সদস্যের কোর কমিটি গঠনের দাবি করছি।’

সংবাদ সম্মেলনে পরিষদের সভাপতি গৌরাঙ্গ দে, সাবেক সাধারণ সম্পাদক তপন কান্তি দাশ ও চন্দন তালুকদার, সহসভাপতি সাধন ধর, অলক দাশ, দুলাল চন্দ্র দে ও পরেশ চন্দ্র চৌধুরী প্রমুখ উপস্থিত ছিলেন।

জন্মাষ্টমী উত্সবের পরে প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার সঙ্গে সাক্ষাৎ করে কোর কমিটি গঠনসহ ১১ দফা দাবি তুলে ধরা হবে বলে সংবাদ সম্মেলনে জানানো হয়। আগামী ১ সেপ্টেম্বর প্রধানমন্ত্রীর সঙ্গে গণভবনে জন্মাষ্টমী উদযাপন পরিষদের শুভেচ্ছা বিনিময়ের কথা রয়েছে।

মন্তব্য



সাতদিনের সেরা