kalerkantho

চুনারুঘাটে সাত লাখ টাকার সেগুন কাঠ উদ্ধারের ঘটনায় মামলা

হবিগঞ্জ প্রতিনিধি    

২০ আগস্ট, ২০১৯ ২১:৫৯ | পড়া যাবে ১ মিনিটে



চুনারুঘাটে সাত লাখ টাকার সেগুন কাঠ উদ্ধারের ঘটনায় মামলা

হবিগঞ্জের চুনারুঘাট উপজেলার আলোচিত সাত লাখ টাকার সেগুন কাঠ উদ্ধারের ঘটনায় আদালতে মামলা দায়ের করেছে বন বিভাগ। কালেঙ্গা রেঞ্জের রশিদপুর বন বিটের ফরেস্টার হাওলাদার আব্দুল ছালাম বাদী হয়ে গত সোমবার গাছ ব্যবসায়ী ও গাছ চোরাই সিন্ডিকেটের সঙ্গে জড়িত মশিউর রহমান চৌধুরী ফয়সলের বিরুদ্ধে হবিগঞ্জ আদালতে বন আইনে মামলা দায়ের করেন। 

গত শুক্রবার গভীর রাতে বন বিভাগ ও থানা-পুলিশের যৌথ অভিযানে উপজেলার দক্ষিণ নরপতি গ্রামের গাছ ব্যবসায়ী মশিউর রহমান চৌধুরী ফয়সলের বাড়ির পুকুর থেকে বিপুল পরিমাণ চোরাই সেগুন গোল কাঠ উদ্ধার করে বন বিভাগ, যার আনুমানিক বাজারমূল্য সাত লাখ টাকা। কাঠ উদ্ধার করা হলেও চোরা কারবারিরা ধরাছোঁয়ার বাইরে। উদ্ধার করা চোরাই সেগুন কাঠ চুনারুঘাটের পূর্ব-পশ্চিম সংরক্ষিত বনাঞ্চলের বলে ধারণা করা হচ্ছে। 

এ ব্যাপারে চুনারুঘাট বন বিভাগের টহল ওসি শুভময় বিশ্বাস বলেন, ‘উদ্ধার করা গাছ বনের না গ্রামের এ বিষয়ে তদন্ত চলছে।’

মন্তব্য



সাতদিনের সেরা