kalerkantho

কলমাকান্দায় যৌতুকের জন্য গৃহবধূকে নির্যাতন

কলমাকান্দা (নেত্রকোনা) প্রতিনিধি   

২০ আগস্ট, ২০১৯ ১৩:০৮ | পড়া যাবে ২ মিনিটে



কলমাকান্দায় যৌতুকের জন্য গৃহবধূকে নির্যাতন

নেত্রকোনার কলমাকান্দায় যৌতুকের দাবিতে মোসা. তানজিলা আক্তার (২২) নামে এক গৃহবধূকে শারীরিকভাবে নির্যাতনের অভিযোগ পাওয়া গেছে। নির্যাতিতা গৃহবধূ কলমাকান্দা উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে চিকিৎসাধীন। এ ঘটনাটি ঘটে গত বৃহস্পতিবার কলমাকান্দা উপজেলার সদর ইউনিয়নের বারমারা ওরফে ভাদাইমার বাজার নামক গ্রামে।

পুলিশ ও ভুক্তভোগীর পারিবারিক সূত্রে জানা যায়, নেত্রকোনা জেলার কলমাকান্দা উপজেলার সদর ইউনিয়নের বারমারা ওরফে ভাদাইমার বাজার নামক গ্রামের মো. আতাব মিয়ার ছেলে মো. সালাম মিয়ার (২৫) সঙ্গে তিন বছর আগে একই ইউনিয়নের বাহাদুরকান্দা গ্রামের মৃত মো. ফিরোজ মোড়লের মেয়ে মোসা. তানজিলা আক্তারের (২২) বিয়ে হয় উভয় পরিবারের সম্মতিতে। বর্তমানে তাদের সংসারে সামিয়া নামে ২ বছরের একটি কন্যাসন্তান রয়েছে। তবে বিয়ের পর থেকে যৌতুকের জন্য প্রায়ই সময় স্বামী মানসিক নির্যাতন করত তানজিলাকে। গত বৃহস্পতিবার (১৫ আগস্ট) ৫০ হাজার টাকা যৌতুক এনে দেওয়ার দাবি করলে এতে অস্বীকৃতি জানান তানজিলা। পরে তার স্বামী সালাম শারীরিকভাবে অমানবিক নির্যাতন করে ঘরে আটকে রাখেন। দুই দিন পরে কৌশলে সালাম তানজিলার বাড়িতে খবর পাঠান। খবর পেয়ে সহোদর ভাই কাঞ্চন মোড়লসহ লোকজন ওই বাড়ি থেকে নির্যাতিত গৃহবধূকে  উদ্ধার করে শনিবার বিকালে কলমাকান্দা উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে ভর্তি করেন। সে বর্তমানে হাসপাতালের বিছনায় শুয়ে কাতরাচ্ছে। 

কলমাকান্দা থানার পরিদর্শক (তদন্ত) মো. সিরাজুল ইসলাম সত্যতা নিশ্চিত করে জানান, ওই ঘটনায় নির্যাতিত ওই গৃহবধূ নিজেই বাদী হয়ে তার স্বামী সালামকে একমাত্র আসামি করে আজ মঙ্গলবার কলমাকান্দা থানায় একটি মামলা দায়ের করেছেন। আসামিকে দ্রুত গ্রেপ্তারের চেষ্টা চলছে।

মন্তব্য



সাতদিনের সেরা