kalerkantho

গফরগাঁওয়ে ধর্ষণের শিকার শিশু শিক্ষার্থী

গফরগাঁও (ময়মনসিংহ) প্রতিনিধি   

২০ আগস্ট, ২০১৯ ১০:৫৩ | পড়া যাবে ২ মিনিটে



গফরগাঁওয়ে ধর্ষণের শিকার শিশু শিক্ষার্থী

ময়মনসিংহের গফরগাঁওয়ের পাগলা থানাধীন মশাখালী ইউনিয়নে দরিদ্র পরিবারের এক শিশু(১২) ধর্ষণের শিকার হয়েছে। গতকাল সোমবার সন্ধ্যায় ওই ইউনিয়নের দড়ি চাইরবাড়িয়া গ্রামে এ ঘটনা ঘটে। শিশুটির মা গতকাল রাতেই পাগলা থানায় লিখিত অভিযোগ করেছেন। গফরগাঁও সার্কেলের অতিরিক্ত পুলিশ সুপার আলী হায়দার চৌধুরী ও পাগলা থানার ওসি শাহিনুজ্জামান খান ঘটনাস্থল পরিদর্শন করেছেন। শিশুটিকে ডাক্তারি পরীক্ষার জন্য ময়মনসিংহ মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে প্রেরণ করা হয়েছে।

স্থানীয় ও থানা পুলিশ সূত্রে জানা গেছে, গতকাল সোমবার সন্ধ্যা ৬টার দিকে উপজেলার দড়ি চাইরবাড়িয়া গ্রামের দরিদ্র পরিবারের মেয়ে ও স্থানীয় সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়ের পঞ্চম শ্রেণির শিক্ষার্থীকে ঘরে একা পেয়ে তার হাত-পা-মুখ বেধে ধর্ষণ করে পালিয়ে যায় একই গ্রামের আবু বকর সিদ্দিক ওরফে আবু মিয়ার বখাটে ছেলে দিলু(২৫)। খোঁজ পেয়ে প্রতিবেশীরা এগিয়ে এসে মেয়েটিকে উদ্ধার করেন। পরে বিষয়টি এলাকাবাসী পাগলা থানা পুলিশকে অবহিত করলে গফরগাঁও সার্কেলের অতিরিক্ত পুলিশ সুপার আলী হায়দার চৌধুরী ও পাগলা থানার ওসি শাহিনুজ্জামান খান ঘটনাস্থল পরিদর্শন করে মেয়েটিকে ডাক্তারি পরীক্ষার জন্য ময়মনসিংহ মেডিক্যাল কলেজ হাসপাতালে প্রেরণ করেন। এ ঘটনায় সোমবার রাতে মেয়েটির মা পাগলা থানায় লিখিত অভিযোগ করেছেন।

স্থানীয় ইউপি সদস্য গোলাম রব্বানী বলেন, ওরা কর্মজীবী দরিদ্র মানুষ। সন্ধ্যায় বাড়িতে লোকজন না থাকার সুযোগে ঘটনাটি ঘটেছে।

গফরগাঁও সার্কেলের অতিরিক্ত পুলিশ সুপার আলী হায়দার চৌধুরী বলেন, লিখিত অভিযোগটি এফআইআরভুক্ত করে আইনগত পদক্ষেপ নেওয়ার জন্য পাগলা থানার ওসিকে নির্দেশ দেওয়া হয়েছে।

পাগলা থানার অফিসার ইনচার্জ শাহিনুজ্জামান খান বলেন, লিখিত অভিযোগের ভিত্তিতে আসামী ধরার চেষ্টা করা হচ্ছে। মেয়েটিকে ডাক্তারী পরীক্ষার জন্য পাঠানো হয়েছে।

মন্তব্য



সাতদিনের সেরা