kalerkantho

গোয়েন্দা পুলিশের জালে ৫ মাদক কারবারি

চাঁদপুর প্রতিনিধি    

১৯ আগস্ট, ২০১৯ ০৯:৫৭ | পড়া যাবে ২ মিনিটে



গোয়েন্দা পুলিশের জালে ৫ মাদক কারবারি

পেটের ভেতর মাদক রেখেও রক্ষা হয়নি। শেষপর্যন্ত গোয়েন্দা পুলিশের জালে ধরা পড়তে হয়েছে। চাঁদপুর গোয়েন্দা পুলিশের (ডিবি) অভিযানে উদ্ধার হয়েছে বিপুল পরিমাণ ইয়াবা ও মাদক বিক্রির টাকা। এ সময় পাঁচ  মাদক ব্যবসায়ীকে আটক করা হয়।

গতকাল রবিবার (১৮ আগস্ট) দুপুরে শহরের খলিশাডুলি এলাকায় বনবিভাগের কার্যালয়ের পাশের একটি বাড়িতে চালানো হয় এই অভিযান।

জেলা গোয়েন্দা পুলিশের ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা, পুলিশ পরিদর্শক নূর হোসেন মামুন বলেন, গোপন সংবাদের ভিত্তিতে উপপরিদর্শক মামুন সরকারের নেতৃত্বে ঘটনাস্থলের একটি ভাড়া বাসায় অভিযান চালানো হয়। এ সময় হাতেনাতে দুই হাজার পিস ইয়াবা, মাদক বিক্রির তিন লাখ ৫৭ হাজার টাকাসহ বসির আহমেদ (৪৮), বিল্লাল হোসেন (৩৪), সৈয়দ নূর (২৮), নাজির আহমেদ (৩০) এবং মনিরুল আলমকে (৪৬) আটক করা হয়। এদের মধ্যে বসির আহমেদ বিশেষ ব্যবস্থায় পেটের ভেতর ইয়াবার চালান সংরক্ষণ করেন। পরে গোয়েন্দা পুলিশ দুই হাজার পিস ইয়াবা বের করে আনে।

গোয়েন্দা পুলিশের প্রাথমিক জিজ্ঞাসাবাদে আটকরা নিজেদেরকে মাদক ব্যবসায়ী বলে স্বীকার করেন। পরে তাদেরকে চাঁদপুর সদর মডেল থানায় হস্তান্তর করা হয়।

জানা গেছে, এই পাঁচ মাদক কারবারির মধ্যে একজন ছাড়া বাকি চারজন কক্সবাজারের বাসিন্দা। তারা মাদক ব্যবসার জন্য স্থানীয় একজনের সহযোগিতায় চাঁদপুরে অবস্থান করেন।

চাঁদপুর সদর থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) মো. নাসিমউদ্দিন বলেন, 'আটক ব্যক্তিদের বিরুদ্ধে মামলা রুজুর পর তাদেরকে গ্রেপ্তার দেখানো হয়েছে। এই ঘটনায় জেলা গোয়েন্দা পুলিশের উপপরিদর্শক মামুন সরকার বাদী হয়ে মাদকবিরোধী আইনে মামলা করেছেন।' 

মন্তব্য



সাতদিনের সেরা