kalerkantho

মঙ্গলবার। ২০ আগস্ট ২০১৯। ৫ ভাদ্র ১৪২৬। ১৮ জিলহজ ১৪৪০

'খালেদার মুক্তি ও নিরপেক্ষ সরকারের অধীনে নির্বাচন চাই'

ঠাকুরগাঁও প্রতিনিধি    

১৪ আগস্ট, ২০১৯ ১৪:১৭ | পড়া যাবে ২ মিনিটে



'খালেদার মুক্তি ও নিরপেক্ষ সরকারের অধীনে নির্বাচন চাই'

'এ সরকার জনগণের দ্বারা নির্বাচিত নয় বলে তাঁরা দীর্ঘ সময়ের জন্য দেশের অর্থনীতি, রাষ্ট্রব্যবস্থা ও সমাজব্যবস্থার ক্ষতি করে যাচ্ছেন। এ সমস্যা থেকে উত্তরণের জন্য বিএনপি বেগম খালেদা জিয়ার মুক্তি ও দ্রুত নিরপেক্ষ সরকারের অধীনে নির্বাচন চায়।'

আজ বুধবার (১৪ আগস্ট) বেলা সাড়ে ১১টার দিকে নিজ জেলা ঠাকুরগাঁওয়ের কালিবাড়ির বাসভবনে সাংবাদিকদের এসব কথা বলেন বিএনপি মহাসচিব মির্জা ফখরুল ইসলাম আলমগীর। 

মির্জা ফখরুল বলেন, 'সরকারের পরিকল্পিত কোন নীতিমালা না থাকা ও সিন্ডিকেটের কারণে এ বছর ঈদে পশুপালনকারী এবং ব্যসায়ীরা ক্ষতিগ্রস্ত হয়েছেন, চামড়ার বাজারে সৃষ্টি হয়েছে ভয়াবহ বিপর্যয়।' তিনি বলেন, 'অনিয়মের মধ্যে চলার কারণে ব্যাংকিং সেক্টর সবচেয়ে ক্ষতিগ্রস্থ।  নিজেদের জমানো টাকা তুলতে গিয়ে মানুষ টাকা পাচ্ছে না। গুটিকয়েক মানুষের সঙ্গে আওয়াামী লীগ নেতাদের যোগসাজশে ব্যাংকিং সেক্টরকে শোষণ করা হচ্ছে।' 

বিএনপি মহাসচিব বলেন, সরকারের সঙ্গে জনগণের কোনো সম্পর্ক নেই। এ কারণে সরকার গণবিরোধী সিদ্ধান্ত নিয়ে দেশের ক্ষতি করছে। দেশ এখন উন্নয়নের রোল মডেল- আওয়ামী লীগ এমন দাবি করলেও প্রকৃতপক্ষে তা জনগণকে ভুল বোঝানোর একটি কৌশল মাত্র। এটি অনেক অর্থনীতিবিদ এরইমধ্যে প্রমাণ করে দিয়েছেন।'

সরকারের সমালোচনা করে ফখরুল বলেন, বিএনপি ক্ষমতায় থাকার সময় চামড়া কেনার জন্য ব্যাংক থেকে ঋণ সুবিধা দেওয়া হতো। বর্তমানে এই ধরনের কোনো  সিস্টেম না থাকার কারণে চামড়ার বাজারে ভয়াবহ বিপর্যয় সৃষ্টি হয়েছে। তিনি বলেন, এ সরকার জনগণের দ্বারা নির্বাচিত নয় বলে তাঁরা দীর্ঘ সময়ের জন্য দেশের অর্থনীতি, রাষ্ট্র ব্যবস্থা ও সমাজ ব্যবস্থার ক্ষতি করে যাচ্ছেন। এ সমস্যা থেকে উত্তরণের জন্য  বিএনপি বেগম খালেদা জিয়ার মুক্তি ও দ্রুত নিরপেক্ষ সরকারের অধীনে নির্বাচন চায়।

এ সময় অন্যদের মধ্যে জেলা বিএনপির সভাপতি তৈমুর রহমান, বিএনপি নেতা তারেক আদনান এবং দলের বিভিন্ন অঙ্গ সংগঠনের নেতাকর্মীরা উপস্থিত ছিলেন।

মন্তব্য



সাতদিনের সেরা