kalerkantho

বুধবার । ২১ আগস্ট ২০১৯। ৬ ভাদ্র ১৪২৬। ১৯ জিলহজ ১৪৪০

'বন্দুকযুদ্ধে' স্কুলছাত্রী ধর্ষণ মামলার দুই আসামি নিহত

ভোলা প্রতিনিধি    

১৪ আগস্ট, ২০১৯ ১৩:৪০ | পড়া যাবে ২ মিনিটে



'বন্দুকযুদ্ধে' স্কুলছাত্রী ধর্ষণ মামলার দুই আসামি নিহত

ঈদের আগের দিন রাতে ভোলা সদর উপজেলার চরসামাইয়া ইউনিয়নে  ষষ্ঠ শ্রেণির এক ছাত্রীকে সংঘবদ্ধ ধর্ষণের ঘটনায় দায়ের করা মামলার প্রধান দুই আসামি কথিত বন্দুকযুদ্ধে নিহত হয়েছে। আজ বুধবার ভোররাতে এই 'বন্দুকযুদ্ধের' ঘটনা ঘটে বলে পুলিশের পক্ষ থেকে বলা হয়েছে।

নিহতরা হলেন আল আমিন (২৮) ও মঞ্জুর আলম (২৪)।

ভোলার পুলিশ সুপার সরকার মোহাম্মদ কায়সার প্রেস ব্রিফিংয়ে বলেন, গতকাল রাতে ভোলার রাজাপুর এলাকায় দুদল জলদস্যুর মধ্যে গোলাগুলি চলছিল। এ সময় পুলিশের একটি দল টহল দিচ্ছিল স্থানীয় জনতা বাজারে। খবর পেয়ে পুলিশের টহলদলটি নদীর পাড়ে পৌঁছালে তারা পুলিশকে লক্ষ্য করে গুলি ছোড়ে। পুলিশও পাল্টা গুলি ছুড়লে পিছু হটে পালিয়ে যায় জলদস্যুরা। পরে সেখান থেকে পুলিশ দুজনের গুলিবিদ্ধ লাশ উদ্ধার করে। পরে লাশ দুটি আল আমিন ও মঞ্জুর আলমের বলে শনাক্ত করা হয়।

এ ছাড়া একটি বন্দুক ও বেশ কিছু ব্যবহৃত কার্তুজের খোসা উদ্ধার করা হয়েছে বলে দাবি করেছেন পুলিশ সুপার।

সরকার মোহাম্মদ কায়সার আরো বলেন, লাশ দুটো কেউ শনাক্ত করতে পারেনি। পরে ধর্ষিতার বাবা সকালে ভোলা সদর হাসপাতালে নিশ্চিত করেন তাঁরা দুজনই তাঁর মেয়ের ধর্ষণকারী। ভোলা সদর হাসপাতালের মর্গ এলাকায় নিহতদের কোনো স্বজন পাওয়া যায়নি। তারা দুজনই মাদক, ধর্ষণ ও জলদস্যুতা মামলার আসামি বলে পুলিশ সুপার জানান।

ঈদের আগের দিন গত রবিবার রাতে সদর উপজেলার চরসামাইয়া এলাকায় ষষ্ঠ শ্রেণির এক ছাত্রীকে পালাক্রমে ধর্ষণের ঘটনা ঘটে। ওই ঘটনায় ভোলা সদর মডেল থানায় আল আমিন ও মঞ্জুর আলমকে প্রধান আসামি করে মামলা হয়। 

মন্তব্য



সাতদিনের সেরা