kalerkantho

বুধবার । ২১ আগস্ট ২০১৯। ৬ ভাদ্র ১৪২৬। ১৯ জিলহজ ১৪৪০

তবে কী শাওন এর মৃত্যুর কারণ মাদক!

শাজাহানপুর (বগুড়া) প্রতিনিধি   

১৩ আগস্ট, ২০১৯ ১৫:২৮ | পড়া যাবে ২ মিনিটে



তবে কী শাওন এর মৃত্যুর কারণ মাদক!

বগুড়ার শাজাহানপুরে সাব্বির হোসেন শাওন (১৮) নামে এক কলেজছাত্রের লাশ উদ্ধারের ঘটনায় ক্লু উদ্ধার করেছে পুলিশ। তিন বন্ধু মিলে মাদক সেবনের পর মোটরসাইকেলযোগে বাড়ি ফেরার পথে বাসের চাকায় পিষ্ট হয়ে মারা যায় শাওন।

পরিদর্শক আবুল কালাম আজাদ জানান, ঈদের আগের রাতে বগুড়া সদরের ঠনঠনিয়া সুফিপাড়ার হাবিবুর রহমানের পুত্র সাব্বির হোসেন শাওন তার প্রতিবেশী বন্ধু মিঠু ও মুন্না নামে তাদের এক বড়ভাই মিলে বগুড়ার পাঁচ তারকা হোটেল মম ইনে মদ খেয়ে মিষ্টি খাওয়ার জন্য মোটরসাইকেলযোগে শেরপুরে যায়। সেখান থেকে ফেরার পথে ৯টার দিকে নয়মাইল যমুনা গ্যাস ফিল্ডের সামনে পৌঁছালে দ্রুতগামী মোটরসাইকেলের পেছন থেকে শাওন পড়ে গিয়ে মহাসড়কের মাঝামাঝি চলে যায়। এ সময় পেছন থেকে আসা অজ্ঞাতনামা যাত্রীবাহী বাসের চাকায় পিষ্ট হয়ে ঘটনাস্থলেই মারা যায় শাওন। কিন্তু অপর দুই বন্ধু মিঠু ও মুন্না মোটরসাইকেল ঘুরিয়ে এসে শাওনের মৃত্যু নিশ্চিত জেনে তাকে ফেলে রেখে চলে যায়। এমনকি শাওনের পরিবারকেও বিষয়টি না জানিয়ে লুকিয়ে রাখে। পরে যমুনা গ্যাস ফিল্ডের সিসি ক্যামেরার ফুটেজ দেখে দুর্ঘটনার বিষয়টি নিশ্চিত হওয়া গেছে।

উল্লেখ্য, ঈদের দিন সোমবার ভোর রাত সাড়ে ৩টার দিকে উপজেলার নয়মাইল স্ট্যান্ড এলাকায় যমুনা গ্যাস ফিল্ডের সামনে ঢাকা-বগুড়া মহাসড়ক থেকে সাব্বির হোসেন শাওনের লাশ উদ্ধার করে থানা পুলিশ। পরে লাশের ময়নাতদন্ত শেষে স্বজনদের হাতে হস্তান্তর করা হয়। লাশের মুখ বিকৃত হওয়ায় সড়ক দুর্ঘটনায় মারা গিয়ে থাকতে পারে বলে প্রাথমিকভাবে ধারণা করে পুলিশ। কিন্তু স্বজনদের অভিযোগের প্রেক্ষিতে থানা পুলিশ ও জেলা পুলিশের ঊর্ধ্বতন কর্মকর্তার তদন্তে সিসি ক্যামেরার ফুটেজে দুর্ঘটনার বিষয়টি নিশ্চিত হওয়া যায়।

মন্তব্য



সাতদিনের সেরা