kalerkantho

বুধবার । ২১ আগস্ট ২০১৯। ৬ ভাদ্র ১৪২৬। ১৯ জিলহজ ১৪৪০

চাঁদাবাজি ও ছিনতাইয়ের অভিযোগে ছাত্রলীগ নেতাসহ আটক ১০

আঞ্চলিক প্রতিনিধি, চাঁপাইনবাবগঞ্জ    

২৪ জুলাই, ২০১৯ ০১:০১ | পড়া যাবে ৩ মিনিটে



চাঁদাবাজি ও ছিনতাইয়ের অভিযোগে ছাত্রলীগ নেতাসহ আটক ১০

ছাত্রলীগ সভাপতি রিজভী আলম রানা

চাঁপাইনবাবগঞ্জের শিবগঞ্জ উপজেলার মাসুদপুর সীমান্তে চাঁদাবাজি ও ছিনতাইয়ের অভিযোগে উপজেলা ছাত্রলীগ সভাপতি রিজভী আলম রানাসহ ১০ জনকে আটক করে পুলিশে সোপর্দ করেছে বিজিবি। মঙ্গলবার সাড়ে ১১টার দিকে মাসুদপুর বিওপির রামনাথপুর এলাকায় এ ঘটনা ঘটে। 

আটকরা হলেন- উপজেলা ছাত্রলীগের সভাপতি রিজভী আলম রানা (২৯), সহসভাপতি ইব্রাহিম আলী (২৫), যুগ্ম সাধারণ সম্পাদক জসিম (২০), সাংগঠনিক সম্পাদক কামরুজ্জামান (২২), বন ও পরিবেশ সম্পাদক ফরহাদ (২২), নাইম, জামিরুল ইসলাম, বাবু আলী, হাবিব ও সোহেল রানা। 

এ নিয়ে মঙ্গলার সন্ধ্যায় মাসুদপুর বিওপির বিট খাটাল মালিক রুবেল হোসেন বাদি হয়ে শিবগঞ্জ থানায় একটি মামলা দায়ের করেন। 

এজাহার সূত্রে জানা গেছে- আটকরা বিট খাটালে প্রবেশ করে কর্মরত লোকজন ও বিটের মালিকের ওপর হামলা করে এবং খাটালের অফিস কক্ষে প্রবেশ করে ৬০ লাখ টাকা ছিনিয়ে নেয়। হামলার সময় বিটে কর্মরত ফয়সাল ইসলাম, বিজিবির এক সদস্য সিরাজসহ বেশ কয়েকজন আহত হন।

বিজিবি মাসুদপুর বিওপির কমান্ডার নায়েব সুবেদার শাহদাত হোসেন জানান, খবর পেয়ে ঘটনাস্থলে পৌঁছে ১০ জনকে আটক করে থানায় নিয়ে আসি। দ্রুত ঘটনাস্থলে না পৌঁছলে বড় অঘটন ঘটার সম্ভাবনা ছিল বলেও জানান তিনি। উপজেলা ছাত্রলীগ সাধারণ সম্পাদক আসিফ আহসান জানান রিজভী আলম রানাসহ ১০ জনকে আটকের কথা শুনেছি। সন্ধ্যায় থানা পুলিশের ডিউটে অফিসার রাশিদা বেগম বলেন মাসুদপুর সীমান্ত এলাকা থেকে বিজিবি ১০ জনকে থানায় নিয়ে এসেছে।

দুর্লভপুর ইউপি চেয়ারম্যান অধ্যাপক আবদুর রাজিব রাজু ও শিবগঞ্জ পৌর মেয়র কারিবুল হক রাজিন- ছাত্রলীগ সভাপতি রিজভী আলম রানাসহ ১০ জনের আটকের বিষয়টি নিশ্চিত করেছেন। 
চাঁপাইনবাবগঞ্জ-১ (শিবগঞ্জ) আসনের সংসদ সদস্য ডা. সামিল উদ্দিন আহমেদ শিমুল বলেন- শুনেছি বিট খাটালে চাঁদাবাজি করতে গিয়ে কয়েকজনকে আটক করা হয়েছে। ছাত্রলীগ বা যেই হোক না কেন, অন্যায় ও অবৈধ কাজে কেউ জড়িত থাকলে আইন নিজ গতিতেই চলবে। আইন সবার জন্য সমান। জড়িতদের বিরুদ্ধে কেউ কোন ব্যবস্থা নিলে আমার কোন সুপারিশ থাকবে না। মঙ্গলবার রাতে শিবগঞ্জ থানা পুলিশের উপ-পরিদর্শক রেজাউল করিম জানান এ ঘটনায় মামলা হয়েছে।

২০১৭ সালে শিবগঞ্জ উপজেলার ওয়াহেদপুর বিজিবি বিওপি এলাকায় একটি অবৈধ গরুর বিট খাটাল করে উপজেলা ছাত্রলীগের সাবেক সভাপতি বেনজির আহমেদ ওই বিট খাটাল থেকে কয়েক কোটি টাকা আদায়ের অভিযোগ পাওয়া যায়। তবে বেনজির আহমেদ জানান, ওই বিট খাটালটি কেনল নামে একজনের নামে বরাদ্দ ছিল। আমি সেই বিট খাটালের অংশীদার ছিলাম মাত্র। 

গত ১৯ জুলাই শিবগঞ্জে অটোরিক্সা ছিনতাইয়ের অভিযোগে উপজেলা ছাত্রলীগের সহ-সভাপতি নবীনূর রহমানকে গণধোলাই দেয়ার অভিযোগ পাওয়া যায়। উপজেলার চককীর্ত্তি ইউনিয়নের কৃষ্ণচন্দ্রপুর বাজার এ ঘটনা ঘটে। নবীনূর রহমান চককীর্ত্তি ইউনিয়নের কৃষ্ণচন্দ্রপুরের মজিবুর রহমানের ছেলে। 

মন্তব্য



সাতদিনের সেরা