kalerkantho

রবিবার। ১৮ আগস্ট ২০১৯। ৩ ভাদ্র ১৪২৬। ১৬ জিলহজ ১৪৪০

উখিয়ায় ইয়াবা কারবারির গুলিবিদ্ধ লাশ উদ্ধার

রামুতে উদ্ধার এক কৃষকের লাশ

নিজস্ব প্রতিবেদক, কক্সবাজার   

২৩ জুলাই, ২০১৯ ২৩:০৯ | পড়া যাবে ২ মিনিটে



উখিয়ায় ইয়াবা কারবারির গুলিবিদ্ধ লাশ উদ্ধার

প্রতীকী ছবি

কক্সবাজার-টেকনাফ মেরিন ড্রাইভ সড়কের উখিয়ার ইনানী এলাকা থেকে একজন ইয়াবা কারবারির গুলিবিদ্ধ লাশ উদ্ধার করা হয়েছে। আজ মঙ্গলবার সকালে ইনানী ফাঁড়ির পুলিশ লাশটি উদ্ধার করে। লাশটি মেরিন ড্রাইভ সড়কের পাশে পড়েছিল। এ সময় ঘটনাস্থল থেকে ১টি দেশীয় তৈরি বন্দুক, ১ রাউন্ড কার্তুজ, ৫০০ পিস ইয়াবাও উদ্ধার করা হয়।

ইনানী পুলিশ ফাঁড়ির আইসি (উপ-পরিদর্শক) সিদ্ধার্থ জানান, স্থানীয় প্রত্যক্ষদর্শীরা ইনানী মেরিন ড্রাইভের পাশে একটি গুলিবিদ্ধ দেহ পড়ে থাকতে দেখে পুলিশকে খবর দেয়। পুলিশ ঘটনাস্থল থেকে গুলিবিদ্ধ লাশ উদ্ধার করে ময়না তদন্তের জন্য কক্সবাজার মর্গে প্রেরণ করে।

এ বিষয়ে উখিয়া থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) মো. আবুল মনসুর জানান, লাশটির পরিচয় শনাক্ত করা গেছে। তিনি (মৃতদেহ) উখিয়া উপজেলার রাজাপালং ইউনিয়নের ৭নং ওয়ার্ডের টাইপালং গ্রামের শামশুল আলম সিকদারের পুত্র নজরুল সিকদার (৩৫)। নিহত নজরুল সিকদার বড় মাপের ইয়াবা কারবারি। ইয়াবা সংক্রান্ত অভ্যন্তরীণ দ্বন্দ্বের কারণে প্রতিপক্ষের গুলিতে হয়তোবা তিনি মারা গেছেন বরে ওসি জানান। 

রামুর জঙ্গল থেকে এক কৃষকের লাশ উদ্ধার
কক্সবাজারের রামু উপজেলার গর্জনিয়া ইউনিয়নের পূর্ব থিমছড়ির গহীন জঙ্গল থেকে আবদুল মতলব (৪৫) নামে এক ব্যক্তির ক্ষতবিক্ষত মৃতদেহ উদ্ধার করেছে পুলিশ। নিহত মতলব ওই ইউনিয়নের বড়বিল থোয়াঙ্গাকাটা এলাকার হাজ্বী মো. হাসেম প্রকাশ ডবল হাজীর ছেলে।

গর্জনিয়া পুলিশ ফাঁড়ির ইনচার্জ মো. নুরুল আবছার জানান, নিহতের শরীরের গলা, তলপেটসহ নানা অংশ দায়ের কোপে ক্ষতবিক্ষত রয়েছে। কেন বা কি কারণে এ হত্যাকাণ্ড তা খতিয়ে দেখছে পুলিশ। সোমবার দিবাগত রাতে এ হত্যাকাণ্ড হয়েছে বলে ধারণা করছেন তিনি। 

স্থানীয় সূত্রে জানা যায়, নিহত আব্দুল মতলব কৃষি কাজের পাশাপাশি গভীর জঙ্গলে পশু, পাখি শিকার করতেন। তার একটি শিকারী দলও আছে। 

মন্তব্য



সাতদিনের সেরা