kalerkantho

বুধবার । ২১ আগস্ট ২০১৯। ৬ ভাদ্র ১৪২৬। ১৯ জিলহজ ১৪৪০

দুর্ভোগ বাড়ছে বানভাসি মানুষের

শেরপুরে বন্যার পানিতে ডুবে আরো এক কিশোরের মৃত্যু

শেরপুর প্রতিনিধি   

২২ জুলাই, ২০১৯ ১৮:২১ | পড়া যাবে ২ মিনিটে



শেরপুরে বন্যার পানিতে ডুবে আরো এক কিশোরের মৃত্যু

শেরপুরে পুরাতন ব্রহ্মপুত্র নদে পানি কমতে থাকলেও এখনো বিপৎসীমার ৫ সেন্টিমিটার ওপর দিয়ে প্রবাহিত হচ্ছে। এতে দুর্ভোগ বাড়ছে বানভাসি মানুষের। বন্যাকবলিত এলাকায় সুপেয় খাবার পানির সংকট দেখা দিয়েছে। বাড়ছে ডায়রিয়া, আমাশয়, জ্বর, চুলকানিসহ পানিবাহিত রোগের প্রকোপ।

২২ জুলাই সোমবার বেলা ১১টার দিকে শেরপুরে সদর উপজেলার মধ্যবয়ড়া এলাকায় বন্যার পানিতে গোসল করতে নেমে নিখোঁজ এক কিশোরের লাশ ২০ ঘণ্টা পর উদ্ধার করেছেন ফায়ার সার্ভিস কর্মীরা। ঘটনাস্থলের অনতিদূরে পানির পাকের মধ্যে নিমজ্জিত অবস্থায় তার লাশ উদ্ধার করা হয়। নিহত সুমন মিয়া (১২) ওই এলাকার সাইকেল মিস্ত্রি গোলাম মোস্তফার ছেলে। রবিবার বিকাল ৩টার দিকে তিন বন্ধু মিলে বন্যার পানিতে গোসল করতে গিয়ে পানির পাকে পড়ে সুমন নিখোঁজ হয়েছিল।

ভাতশাল ইউনিয়নের চেয়ারম্যান মো. রফিকুল ইসলাম ঘটনার সত্যতা নিশ্চিত করেছেন। এ নিয়ে চলমান বন্যা ও পাহাড়ি ঢলে শেরপুর জেলায় ৯ দিনে ১১ শিশু সহ ১৪ জনের মৃত্যুর ঘটনা ঘটল। তবে জেলা প্রশাসনের পক্ষ থেকে চলতি বন্যা ও পাহাড়ি ঢলে সোমবার পর্যন্ত ১০ জনের মৃত্যুর কথা স্বীকার করা হয়েছে। 

এদিকে, শেরপুর-জামালপুর মহাসড়কের পোড়ার দোকান কজওয়ের (ডাইভারশন) ওপর দিয়ে প্রবলবেগে বন্যার পানি এখনও প্রবাহিত হচ্ছে। এই সড়কে যানবাহন চলাচল গত ৪ দিন ধরে বন্ধ হয়ে শেরপুর থেকে জামালপুর হয়ে রাজধানী ঢাকা ও উত্তরাঞ্চলের সাথে সড়ক যোগাযোগ বিচ্ছিন্ন রয়েছে।

মন্তব্য



সাতদিনের সেরা