kalerkantho

বুধবার । ২১ আগস্ট ২০১৯। ৬ ভাদ্র ১৪২৬। ১৯ জিলহজ ১৪৪০

ভুল চিকিৎসায় রোগীর মৃত্যু, চিকিৎসকের বিচার দাবিতে প্রতিবাদসভা

ভৈরব (কিশোরগঞ্জ) প্রতিনিধি   

২২ জুলাই, ২০১৯ ১৭:১৮ | পড়া যাবে ২ মিনিটে



ভুল চিকিৎসায় রোগীর মৃত্যু, চিকিৎসকের বিচার দাবিতে প্রতিবাদসভা

কিশোরগঞ্জের ভৈরবে ডাক্তারের ভুল চিকিৎসায় পোল্ট্রি ব্যবসায়ী জুয়েলের হত্যাকারী চিকিৎসক ডা. কামরুজ্জামান আজাদসহ দায়ীদের ফাঁসি ও ট্রমা হাসপাতাল সিলগালা, রোগীর স্বজনদের বিরুদ্ধে ১ কোটি টাকার ক্ষতিপূরণ মামলা প্রত্যাহারের দাবিতে প্রতিবাদসভা অনুষ্ঠিত হয়েছে।

স্থানীয় ব্যবসায়ী ও এলাকাবাসীদের আয়োজনে পুরাতন ফেরিঘাট সড়কে স্থানীয় পৌর কাউন্সিলর আওলাদ হোসেনের সভাপতিত্বে প্রতিবাদসভা অনুষ্ঠিত হয়েছে। রবিবার বিকালে প্রতিবাদসভায় প্রধান অতিথি হিসেবে বক্তব্য রাখেন উপজেলা পরিষদ চেয়ারম্যান ও উপজেলা আওয়ামী লীগ সভাপতি আলহাজ মো. সায়দুল্লাহ মিয়া, বিশেষ অতিথি হিসেবে বক্তব্য রাখেন কিশোরগঞ্জ জেলা পরিষদের প্যানেল চেয়ারম্যান মির্জা সোলায়মান, উপজেলা আওয়ামী লীগ সাধারণ সম্পাদক জাহাঙ্গীর আলম সেন্টু, পৌর আওয়ামী লীগ সাধারণ সম্পাদক আতিক আহমেদ সৌরভ, উপজেলা আওয়ামী লীগ সহসভাপতি সেলিম খান প্রমুখ।

প্রতিবাদসভায় বক্তারা বলেন, গত ৪ জুলাই ব্যবসায়ী জুয়েল ট্রমা হাসপাতালে হাতের রড খুলতে গিয়ে ডাক্তারের ভুল চিকিৎসা ও ওয়ার্ডবয় গৌরাঙ্গের অতিরিক্ত চেতননাশক ওষুধ প্রয়োগ, পর পর ২টি ইনজেকশন দিয়ে ভুল চিকিৎসার কারণে তার মৃত্যু হয়েছে। এ ঘটনায় নিহতের বড় ভাই কামাল মিয়া বাদী হয়ে চিকিৎসক কামরুজ্জামান আজাদকে প্রধান আসামি করে চারজনের বিরুদ্ধে ভৈরব থানায় একটি হত্যা মামলা দায়ের করলে আটক ডা. কামরুজ্জামানকে আদালতে প্রেরণ করে পুলিশ। বর্তমানে মামলার আসামি ডা. কামরুজ্জামান আজাদ ও ওয়ার্ডবয় গৌরাঙ্গ আদালত থেকে জামিন নিয়েছেন। মামলার অন্য আসামিরা প্রকাশ্যে ঘুরে বেড়াচ্ছে।

কিন্তু মামলাটি ভিন্নখাতে প্রবাহিত করার জন্য হাসপাতালের পক্ষ থেকে নিহত জুয়েলের স্বজনদের বিরুদ্ধে ১ কোটি টাকা ক্ষতিপূরণ দাবি করে আদালতে ১টি মিথ্যা মামলা দায়ের করে। তাই আগামী ৩ দিনের মধ্যে রোগীর স্বজনদের বিরুদ্ধে মামলা প্রত্যাহার এবং জুয়েলের হত্যাকারীদের অবিলম্বে গ্রেপ্তার ও ফাঁসির দাবি জানান।  
 
উল্লেখ্য, গত ২ বছর আগে সড়ক দুর্ঘটনায় জুয়েল আহত হয়। পরে ট্রমা হাসপাতালের অর্থোপেডিক সার্জন ডা. কামরুজাজামান আজাদ তার হাতে অস্ত্রোপচার করেন। পরবর্তীতে তার দেওয়া তারিখ অনুযায়ী ৪ জুলাই অস্ত্রোপচারে হাতের রড খুলতে হাসপাতালে গেলে অপারেশন থিয়েটারে ওয়ার্ডবয় গৌরাঙ্গ মাত্রাতিরিক্ত চেতনানাশক প্রয়োগ করলে জুয়েলের মৃত্যু হয়।

মন্তব্য



সাতদিনের সেরা