kalerkantho

বৃহস্পতিবার । ২২ আগস্ট ২০১৯। ৭ ভাদ্র ১৪২৬। ২০ জিলহজ ১৪৪০

কিশোরী অপহরণের অভিযোগে ছাত্রলীগ নেতা গ্রেপ্তার

মাদারীপুর প্রতিনিধি   

২১ জুলাই, ২০১৯ ২০:১৭ | পড়া যাবে ২ মিনিটে



কিশোরী অপহরণের অভিযোগে ছাত্রলীগ নেতা গ্রেপ্তার

মাদারীপুরে এক কিশোরীকে অপহরণের অভিযোগে জেলা ছাত্রলীগের সহ-সভাপিত বেলায়েত হোসেন মোল্লাকে গ্রেপ্তার করেছে পুলিশ। এ ছাড়া অপহৃত ওই কিশোরীকে উদ্ধার করা হয়েছে।

জানা গেছে, জেলা ছাত্রলীগের সহ-সভাপতি বেলায়েত হোসেন মোল্লার কাছে শহরের সামসুন্নাহার ভূইয়া উচ্চ বালিকা বিদ্যালয়ের দশম শ্রেণির এক ছাত্রী প্রাইভেট পড়তো। প্রাইভেট পড়াকালেই ওই ছাত্রীর ওপর কুনজর পড়ে তার। বিষয়টি ওই কিশোরী তার পরিবারের কাছে জানালে ক্ষিপ্ত হয় বেলায়েত। এরপর গত ১৫ জুলাই বিকেলে কিশোরীকে একটি মাইক্রোবাসে করে অপহরণ করে নিয়ে যায়। 

এই ঘটনায় শনিবার রাতে মাদারীপুর সদর থানায় একটি মামলা করে কিশোরীর পরিবার। সেই মামলায় শনিবার রাতে বেলায়েতকে গ্রেপ্তার করে পুলিশ। গ্রেপ্তারকৃত বেলায়েত সদর উপজেলার জাফরাবাদ গ্রামের কবির উদ্দিন মোল্লার ছেলে। রবিবার দুপুরে বেলায়েতকে জেলহাজতে প্রেরণ করলে বিষয়টি জানাজানি হয়ে যায়।

বেলায়েতের পরিবারের সদস্যরা জানায়, ঐ কিশোরীকে অপহরণ করা হয়নি। ঐ কিশোরীর সাথে বেলায়েতের প্রেমের সম্পর্ক ছিল। দুইজনে একমত হয়েই বিয়ে করেছে।

এদিকে কিশোরীর পরিবার বলছে, কিশোরীকে জোর করে অপহরণ করা হয়েছে।

মাদারীপুর সদর থানার ওসি (তদন্ত) মো. সিরাজুল ইসলাম গ্রেপ্তারের বিষয়টি নিশ্চিত করে বলেন, অপহরণ মামলার আসামি বেলায়েত হোসেনকে গ্রেপ্তার করে ও ভিকটিম মেয়েটিকে আমরা উদ্ধার করে আদালতে প্রেরণ করি।

সদর থানার জিআরও মো. তোফাজ্জেল হোসেন বলেন, বিজ্ঞ সিনিয়র জুডিশিয়াল ম্যাজিস্ট্রেট আদালতে বেলায়েত হোসেন মোল্লা ও ভিকটিমকে হাজির করা হলে আদালত বেলায়েতকে জেল হাজতে প্রেরণ করেন। ভিকটিমের বয়স কম থাকায় তাকে শিশু আদালতে প্রেরণ করেন। ভিকটিমকে শিশু আদালতে হাজির করা হলে বিজ্ঞ আদালত তার পিএসসি ও জেএসসি পরীক্ষার সার্টিফিকেট দেখে বয়স সাড়ে পনেরো বছর হওয়ায় এবং ভিকটিমের পরিবার মেয়েকে তাদের জিম্মায় নিতে চাইলে ভিকটিম যেতে রাজি না হওয়ায় তাকে সার্বিক নিরাপত্তার জন্য ফরিদপুর সেফ হোমে প্রেরণ করা হয়।

মন্তব্য



সাতদিনের সেরা