kalerkantho

সোমবার। ১৯ আগস্ট ২০১৯। ৪ ভাদ্র ১৪২৬। ১৭ জিলহজ ১৪৪০

'বাংলাদেশের মতো এত সাম্প্রদায়িক সম্প্রীতি কোথাও নেই'

হবিগঞ্জ প্রতিনিধি   

২০ জুলাই, ২০১৯ ১৭:২৫ | পড়া যাবে ২ মিনিটে



'বাংলাদেশের মতো এত সাম্প্রদায়িক সম্প্রীতি কোথাও নেই'

নদীপাড়ের সকল অবৈধ স্থাপনা উচ্ছেদ করে নদী সংস্কার করা হবে বলে মন্তব্য করেছেন পানিসম্পদ প্রতিমন্ত্রী জাহিদ ফারুক। তিনি বলেন, হবিগঞ্জের ঝুকিপূর্ণ নদীর বাঁধে গাইড ওয়াল নির্মাণ করা হবে এ জন্য প্রকল্প গ্রহণ করা হয়েছে। প্রকল্পগুলো দ্রুত বাস্তবায়নের জন্য কাজ চলছে। নদীর বাধ ভেঙে যাতে করে গ্রামগুলো প্লাবিত না হয় সে জন্য কাজ করা হচ্ছে। এ জন্য আপনাদের ধৈর্য ধরতে হবে। 

মন্ত্রী শনিবার সকালে হবিগঞ্জের নতুন ও পুরাতন খোয়াই নদী পরিদর্শন শেষে সাংবাদিকদের এ কথা বলেন। এ সময় তার সাথে ছিলেন এমপি শাহ নেওয়াজ মিলাদ গাজী, পানিসম্পদ মন্ত্রণালয়ের অতিরিক্ত সচিব মাহমুদুল ইসলাম, পানি উন্নয়ন বোর্ডের মহাপরিচালক মো. মাহফুজুর রহমান, জেলা প্রশাসক মাহমুদুল কবির মুরাদ ও পুলিশ সুপার মোহাম্মদ উল্ল্যাসহ পানি উন্নয়ন বোর্ডের কর্মকর্তারা।

আমেরিকার প্রেসিডেন্ট এর কাছে বাংলাদেশের বিরুদ্ধে মিথ্যা অভিযোগ প্রসঙ্গে তিনি বলেন, বাংলাদেশের মতো এত সম্প্রীতি কোথাও নেই। আমরা যেভাবে তাদের উৎসবে যাই, তারা আমাদের উৎসবে আসে। সে নজির পৃথিবীর কোথাও নেই।

এর আগে শুক্রবার রাত ১০টার দিনে পানিসম্পদ মন্ত্রণালয়ের প্রতিমন্ত্রী জাহিদ ফারুক এমপি হবিগঞ্জ সার্কিট হাউজে উপস্থিত হলে আওয়ামী লীগ নেতৃবৃন্দ ও জেলা প্রশাসনের কর্মকর্তারা তাকে স্বাগত জানান। পরে সার্কিট হাউজে দলীয় নেতবৃন্দের সাথে মতবিনিময়কালে তিনি বলেন, হবিগঞ্জের খোয়াই নদীসহ সকল নদ-নদীর সমস্যা সমাধান করা হবে। এই লক্ষ্যেই আমার মন্ত্রণালয়ের সকল কর্মকর্তাদেরকে নিয়ে হবিগঞ্জে এসেছি। একসময় সরকারের সামর্থ্য কম ছিল বলে পানি উন্নয়ন বোর্ড পর্যাপ্ত কাজ করতে পারত না। মন্ত্রীরাও আসতেন না। কিন্তু বর্তমান প্রধানমন্ত্রীর নির্দেশে আমরা জনগণের সামনে গিয়ে তাদের দুঃখ-দুর্দশার কথা শুনে সমাধানের চেষ্টা করছি। এটি সম্ভব হচ্ছে দেশের অর্থনৈতিক অবস্থা ভালো হওয়ায়।

প্রতিমন্ত্রী পরে নবীগঞ্জের পারকুল এলাকায় কুশিয়ারা নদীর বাঁধ ও দুর্গত এলাকা পরিদর্শন করেন। এ সময় উপস্থিত লোকজনকে তিনি বলেন, এই স্থানটি গুরুত্বপূর্ণ হওয়ায় এরই মধ্যে প্রকল্প গ্রহণ করা হয়েছে। তবে যেহেতু কিছু প্রক্রিয়া রয়েছে তার জন্য কিছুটা সময় লাগবে। পানি উন্নয়ন বোর্ডের কাজ কিছুটা সময়সাপেক্ষ। তাই সবাইকে ধৈর্য ধারণ করতে হবে।

মন্তব্য



সাতদিনের সেরা