kalerkantho

শুক্রবার । ২৪ জানুয়ারি ২০২০। ১০ মাঘ ১৪২৬। ২৭ জমাদিউল আউয়াল ১৪৪১     

অবশেষে সাংবাদিকের বাসায় থেকে চুরি যাওয়া ল্যাপটপ উদ্ধার

আদমদীঘি (বগুড়া) প্রতিনিধি   

১৯ জুলাই, ২০১৯ ২৩:৪৮ | পড়া যাবে ২ মিনিটে



অবশেষে সাংবাদিকের বাসায় থেকে চুরি যাওয়া ল্যাপটপ উদ্ধার

ছবি : কালের কণ্ঠ

দৈনিক জনকণ্ঠের বগুড়ার আদমদীঘি উপজেলার সান্তাহারের নিজস্ব সংবাদদাতা হারেজুজ্জামান হারেজের বাসা থেকে ল্যাপটপ চুরি হওয়া ঘটনার ৮ দিনের মাথায় শুক্রবার দুপুরে ল্যাপটপটি উদ্ধার করেছেন সান্তাহার পুলিশ ফাঁড়ির ইনচার্জ আনিছুর রহমান। এ ঘটনায় গ্রেপ্তার করা হয়েছে দুই কুখ্যাত চোরকে।

জানা গেছে, ১২ জুলাই শুক্রবার বিকালে বাড়িতে বসে পেশাগত কাজ শেষ করে সাংবাদিক হারেজুজ্জামান হারেজ ল্যাপটপটি চার্জে দিয়ে ৫টার দিকে সান্তাহার প্রেস ক্লাবে চলে যায়। তার কিছু পর ব্যক্তিগত কাজের জন্য সদর দরজায় তালা দিয়ে তার স্ত্রীও বাড়ির বাহিরে যান। রাত পৌনে ৮টার দিকে সাংবাদিক হারেজুজ্জামানের স্ত্রী বাড়িতে ফিরে বাড়ির ওই দরজা খোলা দেখতে পান।

বাড়ির ভেতরে প্রবেশ করে চুরির ঘটনা বুঝতে পারেন। ঘটনা জানার পর পুলিশ কে জানানো হয়। পুলিশ ঘটনাস্থল পরিদর্শন শেষে বাড়ির পাশে অবস্থিত ৫০ মেগাওয়াট পিকিং পাওয়ার প্ল্যান্টের সিসি ফুটেজ সংগ্রহ করেন। ওই ফুটেজে দেখা যায় বিকাল সাড়ে ৫টার দিকে শহরের দিক থেকে তিন চোর ইজিবাইক নিয়ে এসে চুরি সংঘটিত করে একই দিকে চলে যায়।

পুলিশ সিসি ফুটেজ পরীক্ষা করে চোরদের ও চুরির কাজে ব্যবহৃত ইজিবাইক শনাক্ত করার কাজ চালান। বুধবার বিকালে পুলিশ শহরের লোকো পশ্চিম কলোনীর ঝুপরি পট্টিতে থেকে ওই ইজিবাইক উদ্ধার এবং চোরের সর্দার ইজিবাইকের মালিক ও চালক সুমন চৌধুরীকে আটক করে। কিন্তু সে তাৎক্ষণিক স্বীকারোক্তি না দেওয়ায় পুলিশ তাকে বৃহস্পতিবার আদালতে পাঠায়। 

এদিকে, শুক্রবার সকালে পুলিশ ফাঁড়ির ইনচার্জ আনিছুর রহমান লোকো পশ্চিম কলোনীর ঝুপরি পট্টিতে ফের অভিযান চালিয়ে টোটন নামের আরেক চোরকে আটক করে। তাকে জেরা করা শুরু করলে সে চুরির ঘটনা স্বীকার করে এবং তার দেখানো স্থানে মাটিতে পুঁতে রাখা অবস্থা থেকে অক্ষত অবস্থায় ল্যাপটপটি উদ্ধার এবং চোর টোটন কে গ্রেপ্তার করেন। এ কাজে তাকে সার্বক্ষণিক সহযোগীতা করেন ফাঁড়ির এটিএসআই রুস্তম ফারুক। মামলাটি তদন্ত করছেন ফাঁড়ির টিএসআই আব্দুল ওয়াদুদ।

মন্তব্য



সাতদিনের সেরা