kalerkantho

রবিবার। ১৮ আগস্ট ২০১৯। ৩ ভাদ্র ১৪২৬। ১৬ জিলহজ ১৪৪০

প্রবাসীর সঙ্গে মোবাইল ফোনে বাল্যবিবাহ, ৯৯৯ নম্বরে কল পেয়ে বন্ধ করল পুলিশ

গফরগাঁও (ময়মনসিংহ) প্রতিনিধি   

১৯ জুলাই, ২০১৯ ২০:৪৩ | পড়া যাবে ২ মিনিটে



প্রবাসীর সঙ্গে মোবাইল ফোনে বাল্যবিবাহ, ৯৯৯ নম্বরে কল পেয়ে বন্ধ করল পুলিশ

ময়মনসিংহের গফরগাঁওয়ে মোবাইল ফোনের মাধ্যমে মালয়েশিয়া প্রবাসীর সঙ্গে দশম শ্রেণিতে পড়ুয়া এক শিক্ষার্থীর বিয়ের আয়োজন করে দুই পরিবার। এলাকাবাসীর মাধ্যমে ৯৯৯ নম্বরে খবর পেয়ে গফরগাঁও থানা পুলিশ বাল্যবিবাহটি বন্ধ করেন। ঘটনাটি ঘটেছে আজ শুক্রবার বিকালে উপজেলার ভারইল গ্রামে।

গফরগাঁওয় থানা সূত্রে জানা যায়, উপজেলার ভারইল গ্রামের আবুল কালামের মালয়েশিয়া প্রবাসী ছেলে জসিম উদ্দিনের (৪০) সঙ্গে একই গ্রামের জসিম মিয়ার মেয়ে ও পাঁচুয়া ছফির উদ্দিন উচ্চ বিদ্যালয়ের দশম শ্রেণির শিক্ষার্থী সাদিয়া আক্তারের (১৪) বিয়ে ঠিক করা হয়। কিন্তু জসিম উদ্দিন মালয়েশিয়ায় থাকায় ঠিক হয় সব আনুষ্ঠানিকতা শেষে মুঠোফোনে বর-কনে কবুল বলবেন। পরে কথা অনুযায়ী আজ শুক্রবার বিকাল ৩টার দিকে কনের বাড়িতে বিয়ের সব আয়োজন করা হয়। এতে দুই শতাধিক মেহমানের জন্য খাবার রান্না করা হয়।

এদিকে মোবাইল ফোনে বিয়ের বিষয়টি এলাকাবাসীর মধ্যে বেশ আলোড়ন সৃষ্টি করে। এলাকার অজ্ঞাত এক ব্যক্তি বিষয়টি ৯৯৯ নম্বরে গফরগাঁও থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) মোহাম্মদ আবদুল আহাদ খানকে অবহিত করেন। পরে তিনি এসআই নূর শাহিনকে সঙ্গীয় ফোর্সসহ বিয়ে বাড়িতে পাঠান। এসআই নূর শাহিন উপস্থিত দুই পক্ষের সঙ্গে আলোচনা করে বাল্যবিবাহটি বন্ধ করেন। পরে কনের বাবা-মা ‘মেয়ের বয়স না হওয়া পর্যন্ত বিয়ে দেওয়া হবে না’ মর্মে মুচলেকা প্রদান করেন।

গফরগাঁও থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) মোহাম্মদ আবদুল আহাদ খান বলেন, ৯৯৯ নম্বরে ফোন পেয়ে এসআই নূর শাহিনকে সঙ্গীয় ফোর্সসহ পাঠিয়ে বাল্যবিবাহটি বন্ধ করা হয়েছে।

মন্তব্য



সাতদিনের সেরা