kalerkantho

সোমবার। ১৯ আগস্ট ২০১৯। ৪ ভাদ্র ১৪২৬। ১৭ জিলহজ ১৪৪০

শেরপুরে বন্যা পরিস্থিতির অবনতি, স্কুলছাত্রসহ তিন শিশু নিহত

শেরপুর প্রতিনিধি    

১৯ জুলাই, ২০১৯ ২০:০০ | পড়া যাবে ২ মিনিটে



শেরপুরে বন্যা পরিস্থিতির অবনতি, স্কুলছাত্রসহ তিন শিশু নিহত

শেরপুরে বন্যার পানিতে ডুবে ১৯ জুলাই শুক্রবার দুই স্কুলছাত্রসহ তিন শিশু নিহত হয়েছে এবং আরও এক শিশু নিখোঁজ রয়েছে। নিহতরা হলো, সদর উপজেলার চরপক্ষিমারি ইউনিয়নের সাতপাকিয়া এলাকার খলিলুর রহমানের মেয়ে খুশি আক্তার (৬), চরমুচারিয়া ইউনিয়নের চরবাবনা এলাকার মোফাজ্জল মিয়ার ছেলে তৃতীয় শ্রেণিতে পড়ুয়া শামীম মিয়া (৭) এবং শেরপুর পৌর এলাকার উত্তর গৌরীপুর মহল্লার নায়েব আলীর ছেলে নবম শ্রেণির ছাত্র মেহেদী হাসান (১৩)। 

এছাড়া চরপক্ষিমারি ইউনিয়নের নতুন ভাগলগড় গ্রামের সামেদুল ইসলামের ছেলে তৃতীয় শ্রেণিতে পড়ুয়া রুবেল হোসেন (১৩) দুপুরের পর থেকে বন্যার পানিতে ডুবে নিখোঁজ রয়েছে। স্থানীয় জনপ্রতিনিধিরা এসব মৃত্যু ও নিখোঁজের সত্যতা নিশ্চিত করেন। 

চরপক্ষিমারি ইউনিয়নের চেয়ারম্যান মো. আকবর হোসেন বলেন, বসতঘরের চারদিকে বন্যার পানি ওঠায় সেই পানিতে ডুবে দুপুরের দিকে সাতপাকিয়া এলাকায় এক শিশু নিহত ও নতুন ভাগলগড় এলাকায় আরেক জন নিখোঁজ হয়। নিখোঁজ শিশু উদ্ধারে দমকল বিভাগের ডুবুরিয়া চেষ্টা চালিয়ে যাচ্ছেন। 

স্থানীয় সূত্রে জানা যায়, শুক্রবার দুপুর সাড়ে ১২টার দিকে গরপা উত্তর গৌরীপুর মহল্লার মেহেদী তার বন্ধুদের সাথে বাড়ির পেছনে বন্যায় প্লাবিত পানিতে কলাগাছের তৈরি ভেলায় ঘুরতে যায়। ওই সময় হঠাৎ ভেলাটি উল্টে গেলে সাঁতার না জানায় ডুবে যায় মেহেদী। পরে তার বন্ধুদের চিৎকারে স্থানীয়রা ছুটে এসে মেহেদীকে ভেলার নিচ থেকে উদ্ধার করে জেলা হাসপাতালে নিয়ে যায়। পরে কর্তব্যরত চিকিৎসক তাকে মৃত ঘোষণা করেন।

এদিকে শুক্রবার দুপুরে বন্যার পানির প্রবল চাপে সদর উপজেলার বেতমারি-ঘুঘুরাকান্দি ইউনিয়নের বেতমারি এলাকায় বন্যা নিয়ন্ত্রণ বেড়িবাঁধের প্রায় একশ মিটার ভেঙে গেছে। এতে বেতমারি, চরখারচর, ঘুঘুরাকান্দিসহ আশপাশের কয়েকটি গ্রাম প্লাবিত হয়েছে। বেড়িবাঁধের ভাঙা অংশ দিয়ে প্রবলবেগে পানি ঢুকছে। এতে স্থানীয়রা আতংকিত হয়ে পড়েছে। এমন তথ্য জানান বেতমারি ৬ নং ওয়ার্ডের ইউপি মেম্বার মো. হাফিজুর রহমান।

মো. হাফিজুর রহমান জানান, স্থানীয় লোকজন বাঁশ ও বালির বস্তা ফেলে বেড়িবাধঁ রক্ষার চেষ্টা করেও ব্যর্থ হন। বেড়িবাঁধ ভাঙার খবর পেয়ে সদর থানা উপজেলা আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক ও জেলা ইউপি চেয়ারম্যান ফোরাম এসোসিয়েশনের সভাপতি মো. রফিকুল ইসলাম দলীয় নেতাকর্মীসহ ঘটনাস্থল পরিদর্শন করেন।

মন্তব্য



সাতদিনের সেরা