kalerkantho

শনিবার । ২৪ আগস্ট ২০১৯। ৯ ভাদ্র ১৪২৬। ২২ জিলহজ ১৪৪০

‘খাল ভরাট করে দখল করছে হাউজিং কোম্পানিগুলো’

কেরানীগঞ্জ (ঢাকা) প্রতিনিধি   

১৯ জুলাই, ২০১৯ ১৬:৪১ | পড়া যাবে ২ মিনিটে



‘খাল ভরাট করে দখল করছে হাউজিং কোম্পানিগুলো’

বিদ্যুৎ জ্বালানি ও খনিজ সম্পদ প্রতিমন্ত্রী নসরুল হামিদ বিপু বলেছেন, খাল ভরাট করে দখল করছে হাউজিং কোম্পানিগুলো। কিন্তু প্রশাসন তা দেখেও দেখছে না। এক সময় কেরানীগঞ্জ খাল-বিলে ভরপুর ছিল। কিন্তু এখন যত্রতত্র উন্নয়নের নামে খাল-বিল ভরাট করে পরিবেশ নষ্ট করা হচ্ছে। আমাদের এ বিষয়ে সতর্ক থাকতে হবে। বিশেষ করে প্রশাসনের পাশাপাশি জনপ্রতিনিধিদেরও দায়িত্ব নিয়ে কাজ করতে হবে।

শুক্রবার বেলা ১২টার দিকে কেরানীগঞ্জ উপজেলা পরিষদ চত্বরে আয়োজিত ফলদ বৃক্ষমেলার উদ্বোধনী অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথির বক্তব্যে তিনি এসব কথা বলেছেন।

এ সময় নসরুল হামিদ বিপু বলেন, সুন্দর নগরী গড়তে খাল-বিল, পুকুর-ডোবা-নালায় ময়লা আবর্জনা না ফেলে রাস্তাঘাট, মার্কেটের সামনে, খাল ও পুকুর সংস্কার করে সেখানে গাছ লাগাতে হবে। তিনি আরো বলেন, দেশে বিদ্যুতের পরিস্থিতি এক সময় ভয়াবহ ছিল। কিন্তু এখন টিমওয়ার্কের মাধ্যমে আমরা বিদ্যুৎ উৎপাদন ২২ হাজার মেগাওয়াটে নিয়ে এসেছি। টিমওয়ার্কের মাধ্যমে যেকোনো কাজ সুন্দরভাবে করা যায়। তাই পরিবেশ ঠিক রাখতে আমাদের ঐক্যবদ্ধ হয়ে টিমওয়ার্কের মাধ্যমে সামাজিক বনায়ন গড়ে তুলতে হবে। যেহেতু কেরানীগঞ্জের কোনো কোনো এলাকায় চাষযোগ্য জমির পরিমাণ দিন দিন কমে যাচ্ছে, সেহেতু আমাদের বাসার ছাদে বাগান করে সামাজিক বনায়ন গড়ে তুলতে হবে।

কেরানীগঞ্জ উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা শাহে এলিদ মাইনুল আমিনের সভাপতিত্বে বিশেষ অতিথি হিসেবে বক্তব্য রাখেন কেরানীগঞ্জ উপজেলা চেয়ারম্যান ও উপজেলা আওয়ামী লীগের আহ্বায়ক শাহীন আহমেদ। আরো বক্তব্য রাখেন, উপজেলা ভাইস চোয়ারম্যান সাহিদুল হক, উপজেলা প্রকৌশলী শাহজাহান আলী, কৃষি কর্মকর্তা শহিদুল আমিন, জিনজিরা ইউপি চেয়ারম্যান সাকুর হোসেন ও বাস্তা ইউপি চেয়ারম্যান আশকর আলী প্রমুখ।

এ সময় প্রতিমন্ত্রী উপজেলা পরিষদে একটি আম গাছের চারা রোপণ করেন এবং সাড়ে তিনশ চাষির মাঝে গাছের চারা ও বীজ বিতরণ করেন। 

মন্তব্য



সাতদিনের সেরা