kalerkantho

শুক্রবার । ২৩ আগস্ট ২০১৯। ৮ ভাদ্র ১৪২৬। ২১ জিলহজ ১৪৪০

ভৈরবে ট্রেনে কাটা পড়ে নারীসহ দুজনের মৃত্যু

ভৈরব (কিশোরগঞ্জ) প্রতিনিধি   

১৯ জুলাই, ২০১৯ ০৪:৩৩ | পড়া যাবে ২ মিনিটে



ভৈরবে ট্রেনে কাটা পড়ে নারীসহ দুজনের মৃত্যু

কিশোরগঞ্জের ভৈরব রেলওয়ে স্টেশনে ট্রেনে কাটা পড়ে নারীসহ দুজনের মৃত্যু ঘটেছে। বৃহস্পতিবার বিকেল সাড়ে তিনটার সময় ট্রেনের নিচে কাটা পড়ে ভৈরব রেল স্টেশনের ২নং রেল লাইনে জানু বেগম ও স্টেশনের অদূরে রামনগর ব্রিজ সংলগ্ন স্থানে অজ্ঞাত এক পুরুষ মারা যায়।

জানু বেগম কিশোরগঞ্জের মিটামইন থানাধীন ওলিপুর গ্রামের ময়েজ উদ্দিনের স্ত্রী। তিনি ভৈরব থেকে ফেনী যাবার উদ্দেশে চট্টলা ট্রেনে উঠতে গিয়ে এ দুর্ঘটনায় মারা যান। 

যাত্রীরা জানান, ট্রেনটি এ স্টেশনে যতক্ষণ বিরতি দেওয়ার কথা ততক্ষণ না দেওয়ায় অনেক যাত্রী ট্রেনে উঠতে পারেনি এবং অনেক যাত্রী ট্রেন থেকৈ নামতেও পারেনি। তিন মাসের এক শিশুকে রেখে তার মা ট্রেনে চলে গেছে। তিন মিনিট বিরতি থাকলেও মাত্র চল্লিশ সেকেন্ড বিরতি দেওয়ায় এ মৃত্যু ঘটেছে। এর জন্য চালক মাস্টার দায়ী বলে যাত্রীরা জানান।

প্রত্যক্ষদর্শীরা জানান, জানু বেগম ঢাকা থেকে ছেড়ে আসা চট্টগ্রামগামী চট্টলা ট্রেনে উঠতে গেলে ট্রেনটি তখন ছেড়ে দেয়। ট্রেন ছেড়ে দেওয়ায় ওই নারী ট্রেন থেকে পা পিছলে ট্রেনের নিচে কাটা পড়ে তাৎক্ষণিক ঘটনাস্থলেই মারা যায়। 

এ ঘটনায় ভৈরব রেলওয়ে থানায় পৃথক পৃথক দুটি অপমৃত্যু মামলা দায়েরের প্রস্তুতি চলছে বলে জানায় পুলিশ।

মন্তব্য



সাতদিনের সেরা