kalerkantho

মঙ্গলবার। ২০ আগস্ট ২০১৯। ৫ ভাদ্র ১৪২৬। ১৮ জিলহজ ১৪৪০

প্রধানমন্ত্রীর ঈদ উপহার

চাঁপাইনবাবগঞ্জ-ঢাকা রুটে স্বপ্নের ‘বনলতা এক্সপ্রেস’ চালু

চাঁপাইনবাবগঞ্জ প্রতিনিধি   

১৭ জুলাই, ২০১৯ ১৭:০৬ | পড়া যাবে ৩ মিনিটে



চাঁপাইনবাবগঞ্জ-ঢাকা রুটে স্বপ্নের ‘বনলতা এক্সপ্রেস’ চালু

দীর্ঘ আন্দোলন সংগ্রাম ও প্রতিক্ষার অবসান ঘটিয়ে চাঁপাইনবাবগঞ্জবাসীর স্বপ্নের আন্তঃনগর ট্রেন চালু হয়েছে। জেলাবাসীর জন্য প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার ঈদ উপহার হিসেবে আগামীকাল বৃহস্পতিবার সকাল থেকে চাঁপাইনবাবগঞ্জ-ঢাকা রুটে চলবে ‘বনলতা এক্সপ্রেস’।

আজ বুধবার দুপুরে গণভবন থেকে ভিডিও কনফারেন্সের মাধ্যমে প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা এই আন্তঃনগর ট্রেন সার্ভিসের উদ্বোধন করেন। দুপুর সাড়ে ১২টার দিকে পতাকা ও বাঁশি বাজিয়ে প্রধানমন্ত্রী যখন এই ট্রেনের উদ্বোধন করছিলেন, তখন চাঁপাইনবাবগঞ্জ রেলস্টেশনে সমবেত হাজারো মানুষ করতালি দিয়ে আনন্দ উচ্ছাস প্রকাশ করেন। এ সময় প্রধানমন্ত্রী ‘বনলতা এক্সপ্রেস’কে চাঁপাইনবাবগঞ্জবাসীর জন্য তার কোরবানি ঈদের উপহার বলে ঘোষণা দেন।

চাঁপাইনবাবগঞ্জ রেলস্টেশনে উদ্বোধনী অনুষ্ঠানে ভিডিও কনফারেন্স সঞ্চালনা করেন ভারপ্রাপ্ত জেলা প্রশাসক এ কে এম তাজকির-উজ-জামান। এ সময় রেল স্টেশনে রাজশাহী সিটি কর্পোরেশনের মেয়র এ এইচ এম খায়রুজ্জামান লিটন, আওয়ামী লীগের কার্যনির্বাহী কমিটির সদস্য মো. নূরুল ইসলাম ঠান্ডু, চাঁপাইনবাবগঞ্জ ১ আসনের সংসদ সদস্য ডা. সামিল উদ্দিন শিমুল, নারী সংসদ সদস্য ফেরদৌসি ইসলাম জেসি, চাঁপাইনবাবগঞ্জ জেলা আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক মো. আব্দুল ওদুদ, রেলওয়ে পশ্চিমাঞ্চল জোনের মহাব্যবস্থাপক খোন্দকার শহীদুল ইসলাম, চাঁপাইনবাবগঞ্জের পুলিশ সুপার টি এম মোজাহিদুল ইসলাম, সাবেক এমপি জিয়াউর রহমান, সাবেক এমপি গোলাম মোস্তফা বিশ্বাস, জেলা যুবলীগের সভাপতি সামিউল হক লিটনসহ বিভিন্ন শ্রেণি-পেশার কয়েক হাজার মানুষ উপস্থিত ছিলেন।

ভিডিও কনফারেন্সে সরাসরি প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার সঙ্গে কথা বলেন আম ব্যবসায়ী ইসমাইল খান শামীম ও একজন শিক্ষার্থী।

উল্লেখ্য, বৃহস্পতিবার ভোর পৌনে ৬ টায় চাঁপাইনবাবগঞ্জ থেকে ঢাকার উদ্দেশ্যে প্রথম বারের মতো যাবে আন্তঃনগর ট্রেন বনলতা। এতে এসি ও শোভন মিলিয়ে চাঁপাইনবাবগঞ্জের জন্য আসন বরাদ্দ থাকবে ২২৪টি। শুক্রবার ছাড়া সপ্তাহে ছয়দিন চলাচল করবে এই ট্রেনটি। এর আগে ট্রেনটি রাজশাহী-ঢাকা রুটে চলতো।

রেলওয়ের পশ্চিমাঞ্চল জোনের মহাব্যবস্থাপক খোন্দকার শহীদুল ইসলাম জানান, নিয়মিত ট্রেন চলাচলের জন্য চাঁপাইনবাবগঞ্জ রেলস্টেশনের সংস্কার কাজ এগিয়ে চলেছে। আন্তঃনগর ট্রেনের স্টাফদের থাকার জন্য আবাসন ব্যবস্থা করা হয়েছে। এ ছাড়া ট্রেন পরিস্কার-পরিচ্ছন্ন রাখার জন্য ওয়াশপিট নির্মাণ কাজ প্রায় সম্পন্ন হওয়ার পথে।

জেলা আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক আব্দুল ওদুদ জানান, ২০১১ সালের ২৩ এপ্রিল প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা চাঁপাইনবাবগঞ্জ সফরে এসে ঢাকা রুটে আন্তঃনগর ট্রেন চালুর ঘোষণা দিয়েছিলেন। অবকাঠামোগত উন্নয়নের জন্য দেরি হলেও প্রধানমন্ত্রী তার কথা রেখেছেন। এতে চাঁপাইনবাবগঞ্জবাসী কৃতজ্ঞ।  

মন্তব্য



সাতদিনের সেরা