kalerkantho

শুক্রবার । ২৩ আগস্ট ২০১৯। ৮ ভাদ্র ১৪২৬। ২১ জিলহজ ১৪৪০

ভেজাল খাদ্য তৈরি : ২০ লাখ টাকা জরিমানা, সিলগালা ও কারাদণ্ড

অনলাইন ডেস্ক   

১৬ জুলাই, ২০১৯ ১৮:১২ | পড়া যাবে ২ মিনিটে



ভেজাল খাদ্য তৈরি : ২০ লাখ টাকা জরিমানা, সিলগালা ও কারাদণ্ড

অননুমোদিত ও ভেজাল খাদ্য উৎপাদনকারী ১টি প্রতিষ্ঠানকে ২০ লাখ টাকা জরিমানা, ২টিকে সিলগালা এবং পাঁচজনকে ১৫ থেকে ৩০ দিনের কারাদণ্ড প্রদান করেছেন র‍্যাব এর ভ্রাম্যমাণ আদালত। নারায়ণগঞ্জের রূপগঞ্জ থানাধীন বানিয়াদি ও ভুলতা এলাকায় এই অভিযান পরিচালনা করা হয়।

কালের কণ্ঠকে বিষয়টি নিশ্চিত করে র‍্যাপিড অ্যাকশন ব্যাটালিয়ন ১১ এর ক্রাইম প্রিভেনশন স্পেশাল কম্পানির কম্পানি কমান্ডার মেজর তালুকদার নাজমুস সাকিব বলেন, আমরা গোপন তথ্যের ভিত্তিতে জানতে পারি ৩টি খাদ্য উৎপাদনকারী প্রতিষ্ঠানে অনুমোদনহীনভাবে খাদ্য উৎপাদন করে প্যাকেটে বিএসটিআই এর লোগো ছাপিয়ে বাজারজাত করছে। সেই সাথে উৎপাদিত খাদ্য ও পানীয় নির্ধারিত তাপমাত্রায় সংরক্ষণ করা হচ্ছে না, গুণগত মান পরিবর্তন করা হচ্ছে এবং প্যাকেটে উৎপাদনের তারিখ না দিয়ে অগ্রিম তারিখ দেওয়া হচ্ছে। এ ছাড়াও অস্বাস্থ্যকর পরিবেশে খাদ্য উৎপাদন ও প্রক্রিয়াজাত করা এবং বিএসটিআই এর নীতিমালা লঙ্ঘন করে খাদ্য উৎপাদন করা হচ্ছে বলেও আমাদের কাছে সংবাদ আসে। 

তিনি আরো বলেন, এর পর আমরা র‍্যাব সদর দপ্তরকে বিষয়টি অবহিত করি এবং র‍্যাব সদর দপ্তরের নির্বাহী হাকিম মো. নিজাম উদ্দিন এর নেতৃত্বে এবং র‍্যাব ১১, সিপিএসসির সমন্বয়ে ভ্রাম্যমাণ আদালত পরিচালনা করে ওই তিন প্রতিষ্ঠানের বিষয়ে অভিযোগগুলো সম্পর্কে নিশ্চিত হই। এ বিষয়ে র‌্যাবের নির্বাহী হাকিম অপরাধগুলো আমলে নিয়ে ভোক্তা অধিকার সংরক্ষণ আইন ২০০৯, নিরাপদ খাদ্য আইন ২০১৩ ও বিএসটিআই আইন ২০১৮ এ দোষী সাব্যস্ত করে এস আলম খান কনজ্যুমার প্রোডাক্টকে সিলগালা এবং একজনকে ৩০ দিন ও চারজনকে ১৫ দিনের কারাদণ্ড প্রদান, হাসান ফুডকে ২০ লাখ টাকা জরিমানা এবং এসএস অ্যাগ্রো প্রোডাক্টকে সিলগালা করে দেওয়া হয়। 

অননুমোদিত ও ভেজাল খাদ্য উৎপাদন এবং বাজারজাতকরণের বিরুদ্ধে র‌্যাব ১১ এর অভিযান অব্যাহত থাকবে বলেও জানান র‍্যাবের ওই কর্মকর্তা।

মন্তব্য



সাতদিনের সেরা