kalerkantho

শুক্রবার । ২৩ আগস্ট ২০১৯। ৮ ভাদ্র ১৪২৬। ২১ জিলহজ ১৪৪০

জমজমাট চাঁইয়ের হাট

হযরত আলী হিরু, স্বরূপকাঠি   

১৬ জুলাই, ২০১৯ ১৭:৪৭ | পড়া যাবে ৩ মিনিটে



জমজমাট চাঁইয়ের হাট

পিরোজপুরের স্বরূপকাঠির জগন্নাথকাঠি ও মিয়ারহাট বন্দরে ক্রেতা-বিক্রেতায় জমজমাট হয়ে উঠেছে চাঁইয়ের (বাঁশের তৈরি মাছ ধরার উপকরণ) হাট। সপ্তাহের সোমবার ও বৃহস্পতিবারে ওই হাট বসে। 

সরেজমিন বন্দর দুটি ঘুরে দেখা গেছে, খালের পাড়ের বিশাল অংশজুড়ে বসে ওই হাট। বিভিন্ন এলাকা থেকে ক্রেতা-বিক্রেতারা চাঁই বিকিকিনির জন্য হাট দুটিতে ভিড় জমাচ্ছেন। বছরে চৈত্র থেকে শ্রাবণ এই ৫ মাস নদী ও খাল বিলে মাছ বেশি পাওয়া যায় বলে এই সময়কে চাইয়ের মৌসুম হিসেবে ধরা হয়। হাটে ৪ ধরনের চাই বেচাকেনা হয়। এগুলো হলো খলনী, বুচনি, ময়ুরপঙ্খী, গোল চাঁই। এর মধ্যে ময়ুরপঙ্খী ও গোল চাঁইয়ের চাহিদাই বেশি।

প্রতিটি খলনী চাঁই বিক্রি হচ্ছে ৫০০ থেকে ৬০০ টাকা, বুচনি চাঁই বিক্রি হচ্ছে ৩০০ থেকে ৫০০ টাকা, ময়ুরপঙ্খী ১২৫ থেকে ১৫০ টাকা, গোল চাঁই ৬০ থেকে ১০০ টাকা। এ ছাড়াও চাঁইয়ের গড়া (বাঁশের তৈরি বেড়া) বিক্রি হচ্ছে প্রতিটি ৪০ থেকে ৮০ টাকা। প্রতি হাটে বন্দর দুটিতে প্রায় দেড় থেকে দুই হাজার চাঁইয়ের বেচাকেনা হয়। 

চাঁই ব্যবসায়ী চাঁন মিয়া জানান, তিনি দীর্ঘ ৩৩ বছর ধরে এ ব্যবসার সঙ্গে জড়িত। তাদের এলাকার অন্তত দুই শতাধিক পরিবার এ ব্যবসা করে জীবিকা নির্বাহ করছে। তারা এলাকায় চাঁই তৈরি করার জন্য কারখানা তৈরি করেছেন। সেখানে এলাকার নারী-পুরুষ সমানতালে চাঁই তৈরি করে। প্রতিটি চাঁই তৈরিতে ৪০ টাকা থেকে ৪০০ টাকা পর্যন্ত খরচ হয় বলে তিনি জানান।

চাঁইয়ের কারিগর অমূল্য বেপারী জানান, বর্তমানে বাঁশ ও সুতোর দাম বৃদ্ধি পাওয়ায় যে হারে চাঁইয়ের উৎপাদন খরচ বেড়েছে সে হারে দাম বাড়েনি ফলে তারা এখন আর এ ব্যবসায় তেমন একটা লাভ করতে পারছেন না। এ ছাড়া এ ব্যবসার জন্য ব্যাংক থেকে ঋণ দেওয়া হয় না বলে বেসরকারি এনজিও ও স্থানীয় ব্যক্তিদের কাছ থেকে চড়া সুদে ঋণ নিয়ে ব্যবসা করতে হয় তাদের। সেই ঋণ শোধ করে যে সামান্য আয় থাকে তা দিয়ে পরিবার-পরিজনদের নিয়ে সংসার চালাতে বড়ই কষ্ট করতে হয় তাদের। 

নারী কারিগর মুক্তা বেগম জানান, দিনে ১৫ থেকে ২০টি ছোট চাঁই তৈরি করতে পারেন প্রতিটির জন্য তিনি ৫ টাকা করে মজুরি পান। চাঁই ক্রেতা ধলহার গ্রামের সন্তোষ মিস্ত্রী জানান, তিনি প্রতিবছরই চাঁই কিনে থাকেন। গত বছরের তুলনায় এ বছর চাঁইয়ের দাম একটু বেশি। তার ৩০টি চাঁইয়ে প্রতিদিন এক থেকে দেড় হাজার টাকার মাছ পেয়ে থাকেন।  

মন্তব্য



সাতদিনের সেরা