kalerkantho

বৃহস্পতিবার । ১৮ জুলাই ২০১৯। ৩ শ্রাবণ ১৪২৬। ১৪ জিলকদ ১৪৪০

রিফাত হত্যাকাণ্ড : রাব্বি সাতদিনের, সাইমুন চতুর্থ দফায় তিনদিনের রিমান্ডে

বরগুনা প্রতিনিধি   

১২ জুলাই, ২০১৯ ২১:০৬ | পড়া যাবে ২ মিনিটে



রিফাত হত্যাকাণ্ড : রাব্বি সাতদিনের, সাইমুন চতুর্থ দফায় তিনদিনের রিমান্ডে

 বরগুনার আলোচিত রিফাত শরীফ হত্যাকাণ্ডের ঘটনায় ছয় নম্বর আসামি রাব্বি আকনের সাতদিনের রিমান্ড এবং মামলার সন্দেহভাজন অভিযুক্ত সাইমুনের চতুর্থ দফায় তিনদিনের রিমান্ড মঞ্জুর করেছে আদালাত। 

শুক্রবার বিকেলে বরগুনার সিনিয়র জুডিশিয়াল ম্যাজিস্ট্রেট আদালতের বিচারক মোহাম্মদ সিরাজুল ইসলাম গাজী এ রিমান্ড মঞ্জুর করেন। 

এ বিষয়ে রিফাত হত্যা মামলার তদন্ত কর্মকর্তা ও বরগুনা সদর থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি তদন্ত) হুমায়ুন কবির বলেন, আদালতে হাজির করে রাব্বি আকনের ১০ দিনের এবং সাইমুনকে পাঁচদিনের রিমান্ড আবেদন করে পুলিশ। পরে শুনানি শেষে আদালত রাব্বি আকনের সাতদিনের এবং সাইমুনের তিনদিনের রিমান্ড মঞ্জুর করেন।

এর আগে বরগুনার আলোচিত রিফাত শরীফ হত্যাকাণ্ডের ছয় নম্বর আসামী আল কাইয়ুম ওরফে রাব্বি আকনকে গ্রেপ্তার করে পুলিশ। বৃহস্পতিবার রাত পৌনে ৯টার দিকে রাব্বিকে গ্রেপ্তারের কথা জানালেও রাব্বিকে কোন জায়গা থেকে গ্রেপ্তার করা হয়েছে তদন্তের স্বার্থে তা জানায়নি পুলিশ।
 
রাব্বি আকন বরগুনা সদর উপজেলার কেওড়াবুনিয়া এলাকার মো. আবুল কালাম আজাদের ছেলে। বৃহস্পতিবার রাত সাড়ে ৯টার দিকে বরগুনার পুলিশ সুপারের কার্যালয়ে আয়োজিত এক সংবাদ সম্মেলনে রাব্বি আকনকে গ্রেপ্তারের কথা জানান পুলিশ সুপার মো. মারুফ হোসেন। 

এ সময় পুলিশ সুপার মারুফ হোসেন আরো বলেন, মামলার অগ্রগতি সন্তোষজনক। গত ২৬ জুলাই নির্মম হত্যাকাণ্ডটি ঘটার পর পুলিশ বিভিন্ন জায়গায় অভিযান চালিয়ে এজাহার নামায় থাকা সাতজন (ছয়জন জীবীত) এবং তদন্তে প্রাপ্ত সন্দিগ্ধ আসামী সাতজনসহ মোট ১৪জন আসামীকে গ্রেপ্তার করে। 

এজাহারে থাকা গ্রেপ্তারকৃত তিনজন এবং তদন্তে প্রাপ্ত সন্দিগ্ধ গ্রেফতারকৃত চারজনসহ মোট সাতজন আসামীকে ১৬৪ ধারায় জাবানবন্দি রেকর্ড করার জন্য আদালতে প্রেরণ করা হয়েছে।
 
গ্রেপ্তারকৃত এজাহার নামীয় দু'জন এবং তদন্তে প্রাপ্ত সন্দিগ্ধ আসামী তিনজনসহ মোট পাঁচজন আসামীকে আদালতের অনুমতিক্রমে বিভিন্ন মেয়াদে রিমান্ডে এনে জিজ্ঞাসাবাদ করা হচ্ছে। পুলিশ এখনো এই মামলার এজাহারে বর্ণিত আসামীসহ সকল পলাতক আসামীদের গ্রেপ্তারের জন্য সকল ধরনের কৌশল অবলম্বন করে চেষ্টা চালিয়ে যাচ্ছে। 

মন্তব্য



সাতদিনের সেরা