kalerkantho

শুক্রবার । ২৩ আগস্ট ২০১৯। ৮ ভাদ্র ১৪২৬। ২১ জিলহজ ১৪৪০

বসুন্ধরা সিমেন্টের রাজমিস্ত্রি কর্মশালা অনুষ্ঠিত

সৈয়দপুর (নীলফামারী) প্রতিনিধি   

২৬ জুন, ২০১৯ ২৩:৪৩ | পড়া যাবে ২ মিনিটে



বসুন্ধরা সিমেন্টের রাজমিস্ত্রি কর্মশালা অনুষ্ঠিত

ছবি: কালের কণ্ঠ

নীলফামারীর সৈয়দপুরে দেশের শীর্ষস্থানীয় শিল্পগোষ্ঠী বসুন্ধরা গ্রুপের বসুন্ধরা সিমেন্টের রাজমিস্ত্রি কর্মশালা অনুষ্ঠিত হয়েছে। আজ বুধবার বিকেলে সৈয়দপুর শহরের বিমানবন্দর সড়কের সেনা কমিউনিটি সেন্টারে ‘শৈল্পিক নির্মাণ রাজমিস্ত্রির অবদান’ শীর্ষক ওই কর্মশালার আয়োজন করা হয়। 
 
এতে প্রধান অতিথি হিসেবে উপস্থিত ছিলেন বসুন্ধরা সিমেন্টের নর্থ উইং-এর উইং ইনচার্জ আশিক আহমেদ।
 
বিশেষ অতিথি হিসেবে ছিলেন নীলফামারী পৌরসভার নির্বাহী প্রকৌশলী তারিক রেজা ও সৈয়দপুর পৌরসভার নির্বাহী প্রকৌশলী আইয়ুব আলী।
 
উক্ত কর্মশালায় সভাপতিত্ব করেন বসুন্ধরা সিমেন্টের পরিবেশক শহরের বঙ্গবন্ধু সড়কস্থ মেসার্স মাহবুব এন্টারপ্রাইজের স্বত্ত্বাধিকারী আলহাজ্ব মো. মাহবুব আলম।
 
এতে অন্যান্যদের মধ্যে বসুন্ধরা সিমেন্টের রংপুর বিভাগের ডিএসআই হুমায়ুন কবির, নীলফামারী এরিয়ার এ এস এম মো. রাজু আহমেদ, টিএসই মো. আব্দুল গালিব ও সুকুমার চন্দ্র সরকার, প্রকৌশলী মো. শফিকুর রহমান স্থানীয় পরিবেশক ঢেলাপীরবাজারের মেসার্স হাজী ট্রেডার্সের স্বত্ত্বাধিকারী মো. মেহেববুল্লাহ্ সরকার বাদল প্রমুখ। 
 
গোটা কর্মশালাটি সঞ্চালনা করেন বসুন্ধরা সিমেন্টের ইঞ্জিনিয়ার শহীদ হাসান।
কর্মশালায় প্রধান অতিথির বক্তব্যে বসুন্ধরা সিমেন্ট এর নর্থ উইং-এর উইং ইনচার্জ আশিক আহমেদ বলেন, 'ধারাবাহিক গুণগত মানের জন্য বর্তমানে দেশের সবচেয়ে আইকনিক প্রকল্প পদ্মা সেতু নির্মাণ প্রকল্প, পদ্মা সেতু নদী শাসন প্রকল্প, পদ্মা সেতুর অ্যাপ্রোচ রোড, মেট্রো রেল প্রকল্প, ফাস্ট ঢাকা এলিভেটেড এক্সপ্রেসওয়ে প্রকল্প, রূপপুর পারমাবিক বিদ্যুৎ প্রকল্প, মাতারবাড়ি বিদ্যুৎ প্রকল্প ভুলতা ফ্লাইওভার প্রকল্প, কালশী ফ্লাইওভার প্রকল্প রূপসা রেল সেতু প্রকল্প, রামপাল বিদ্যুৎ প্রকল্পর মতো বড় স্থাপনাগুলোতে ব্যবহৃত হচ্ছে বসুন্ধরা সিমেন্ট।
 
কর্মশালায় নীলফামারী জেলার সদর, ডোমার, ডিমলা, জলঢাকা ও সৈয়দুপর উপজেলার ৬০ জন রাজমিস্ত্রি অংশ গ্রহণ করেন। 
 
কর্মশালা শেষে র‌্যাফেল ড্র অনুষ্ঠিত হয়েছে। এ ছাড়াও কর্মশালায় অংশগ্রহণকারী রাজমিস্ত্রিদের বসুন্ধরা সিমেন্টের পক্ষ থেকে উপহার সামগ্রী প্রদান করা হয়।

মন্তব্য



সাতদিনের সেরা