kalerkantho

সোমবার । ২২ জুলাই ২০১৯। ৭ শ্রাবণ ১৪২৬। ১৮ জিলকদ ১৪৪০

প্রতিবাদী যুবকের পা ভাঙল বখাটেরা

লক্ষ্মীপুরে ছাত্রলীগ নেতাসহ আসামি ৮, গ্রেপ্তার ২

লক্ষ্মীপুর প্রতিনিধি   

২৬ জুন, ২০১৯ ০৫:০০ | পড়া যাবে ৩ মিনিটে



লক্ষ্মীপুরে ছাত্রলীগ নেতাসহ আসামি ৮, গ্রেপ্তার ২

লক্ষ্মীপুর সদরে স্কুলছাত্রীকে উত্ত্যক্তের প্রতিবাদ করায় নাছির উদ্দিন নামের এক যুবককে বখাটেরা রড এবং হাতুড়িপেটা করে ডান পা ভেঙ্গে দেওয়া ও শরীরের বিভিন্ন অংশে রক্তাক্ত জখম করার ঘটনায় থানায় মামলা করা হয়েছে। 
 
গত সোমবার রাত ১১টার দিকে প্রতিবাদী নাছিরের আবদুল কুদ্দুস বাদী হয়ে ইউনিয়ন ছাত্রলীগের সাধারণ সম্পাদকসহ ৮ জনের বিরুদ্ধে চন্দ্রগঞ্জ থানায় এ মামলা দায়ের করেন। হামলার ঘটনায় স্থানীয়দের সহযোগিতায় আটক দুই বখাটকে পুলিশ মামলায় গ্রেপ্তার দেখিয়ে মঙ্গলবার দুপুরে জেলা আদালতে পাঠিয়েছেন। আদালত তাদের জামিন নামঞ্জুর করে কারাগারে পাঠানোর নির্দেশ দেয়।
 
মামলার আসামিরা হলেন- সদরের মান্দারী ইউনিয়ন ছাত্রলীগের সাধারণ সম্পাদক সাইদুর রহমান তুষার (২২), দুর্গাপুর এলাকার মো. কামালের ছেলে মো. নিজাম (২৫), আবু তাহেরের ছেলে রাকিব (১৯), রতনপুর গ্রামের নিজামের ছেলে মুশফিকুর রহিম সাইমুন (২০), ছায়েদ বেপারীর ছেলে মো. রিয়াদ (১৯), আবদুস শহিদের ছেলে হৃদয় (১৯), মৃত. সাহাবুদ্দিনের ছেলে শাকিল (১৯) ও পূর্ব ভাঙ্গাখাঁ এলাকার মহি উদ্দিনের ছেলে নোমান (২১)।
 
থানা পুলিশ জানায়, প্রতিবাদী যুবকের ওপর হামলার ঘটনার পর স্থানীয়দের সহযোগিতায় পুলিশ মূল হামলাকারী মো. নিজাম ও তার সহযোগী মো. রিয়াদকে আটক করেছে। পরে তাদেরকে এ মামলায় গ্রেপ্তার দেখানো হয়।
 
এজাহার সূত্রে জানা যায়, সদর উপজেলার মান্দারী ইউনিয়নের আমিন বাজার এলাকার ভূঁইয়ার দোকানের সামনে গত রবিবার (২৩ জুন) বিকালে বখাটে নিজাম উদ্দিন স্কুলছাত্রীদের উত্ত্যক্ত করে। এতে নাছির উদ্দিন বাধা দেয়। নাছির ঢাকার একটি ফার্মেসীতে চাকরি করেন। তাতেই নিজাম ক্ষিপ্ত হয়ে সহযোগীদের ডেকে আনে। 
একপর্যায়ে নিজাম ও তার সহযোগীরা লাঠি, রড, হাতুড়ি দিয়ে নাছিরকে এলোপাতাড়ি  পেটাতে থাকে। এতে নাছিরের ডান পা ও কোমরের হাঁড় ভেঙ্গে যায় এবং শরীরের বিভিন্ন অংশে রক্তাক্ত জখম হয়। পরে বখাটেরা নাছিরের একটি মোবাইল ফোন সেট ও ৭ হাজার ৫০০ টাকা নিয়ে পালিয়ে যায়। 
 
এদিকে নাছিরকে আহত অবস্থায় উদ্ধার করে প্রথমে লক্ষ্মীপুর সদর হাসপাতালে ভর্তি করা হয়। পরে উন্নত চিকিৎসার জন্য কর্তব্যরত চিকিৎসক তাকে ঢাকা পঙ্গু হাসপাতালে প্রেরণ করেন। তিনি সেখানে চিকিৎসা নিচ্ছেন।
 
এ ব্যাপারে চন্দ্রগঞ্জ থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) আবুল কালাম আজাদ জানান, প্রতিবাদী যুবককে পেটানোর ঘটনায় থানায় মামলা হয়েছে। গ্রেপ্তার দুই আসামিকে আদালতের মাধ্যমে কারাগারে পাঠানো হয়। অন্য আসামিদের গ্রেপ্তারে অভিযান চলছে।

মন্তব্য



সাতদিনের সেরা