kalerkantho

মঙ্গলবার। ১৬ জুলাই ২০১৯। ১ শ্রাবণ ১৪২৬। ১২ জিলকদ ১৪৪০

রাউজানে ধর্মীয় প্রতিষ্ঠানের বিরুদ্ধে শিক্ষার্থীদের দাঁড় করানোর অভিযোগ

কালের কণ্ঠ অনলাইন   

২৬ জুন, ২০১৯ ০২:১১ | পড়া যাবে ২ মিনিটে



রাউজানে ধর্মীয় প্রতিষ্ঠানের বিরুদ্ধে শিক্ষার্থীদের দাঁড় করানোর অভিযোগ

চট্টগ্রামের রাউজানে অবস্থিত ঐতিহ্যবাহী কাগতিয়া মাদরাসা সুদীর্ঘকাল থেকে ইসলামের শরিয়ত ও তরিকতের প্রচারকেন্দ্র হিসেবে দেশ-বিদেশে সুখ্যাতি অর্জন করে। ১৯৩২ সালে প্রতিষ্ঠিত এ অঞ্চলের পুরনো ও ঐতিহ্যবাহী দ্বীনি শিক্ষাপ্রতিষ্ঠান কাগতিয়া এশাতুল উলুম কামিল এমএ মাদরাসা। 
 
এ শিক্ষাপ্রতিষ্ঠান সব সময় অন্যায় ও জঙ্গিবাদের বিরুদ্ধে সোচ্চার। এতে মুক্তিযোদ্ধাদের সন্তানরাসহ এলাকার হাজার হাজার শিক্ষার্থী লেখাপড়া শেষ করে সরকারি-বেসরকারি প্রতিষ্ঠান এমনকি বিভিন্ন উন্নত দেশের বিভিন্ন সংস্থায় সুনামের সঙ্গে কাজ করে জাতীয় ও আন্তর্জাতিক ক্ষেত্রে অবদান রাখছে। 
 
এ মাদরাসায় আন্তর্জাতিক মাতৃভাষা দিবস, স্বাধীনতা দিবস, জাতীয় শোক দিবস, বিজয় দিবস, জাতির জনক বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের জন্মদিন ব্যাপকভাবে পালন করা হয়ে থাকে। কিন্তু একটি অপশক্তি খ্যাতিমান প্রতিষ্ঠানটির বিরুদ্ধে অপপ্রচারে লিপ্ত হওয়ায় মাদরাসা কর্তৃপক্ষ উদ্বেগ প্রকাশ করেছে।
 
এক সংবাদ বিজ্ঞপ্তিতে বলা হয়েছে, গত সোমবার রাঙামাটি সড়কে রাউজানের কয়েকটি মাদরাসার শিক্ষক-শিক্ষার্থী দিয়ে রাউজান জমিয়তুল মোদার্রেছিনের ব্যানারে মানববন্ধন কর্মসূচি পালন করতে বাধ্য করা হয়েছে। অথচ শিক্ষা মন্ত্রণালয়ের আদেশ হচ্ছে, কোমলমতি ছাত্র-ছাত্রীদের দিয়ে কোনো মানববন্ধন বা কারো অভ্যর্থনা দেওয়া যাবে না। 
 
পরীক্ষার তারিখ পিছিয়ে শিক্ষার্থীদের শ্রেণিকক্ষ থেকে বের করে রাস্তায় দাঁড় করিয়ে মানববন্ধন করা অপরাধ। এ অবস্থায় ঐতিহ্যবাহী দ্বীনি শিক্ষাপ্রতিষ্ঠান কাগতিয়া এশাতুল উলুম কামিল এমএ মাদরাসার সুনাম ক্ষুণ্ন হয় এমন তত্পরতা থেকে বিরত থাকার জন্য এবং এ ব্যাপারে বিভ্রান্ত না হওয়ার জন্য সবার প্রতি আহবান জানানো হয়েছে। 
 
বিজ্ঞপ্তিতে বলা হয়েছে, সরকারের শিক্ষাসংক্রান্ত সব বিধিবিধান মেনে চলে বিজ্ঞান ও আধুনিক শিক্ষার সমন্বয়ে পরিচালিত কাগতিয়া মাদরাসার শিক্ষার্থীদের একাডেমিক সাফল্য বরাবরই উৎসাহব্যঞ্জক। 
 
এ মাদরাসায় শিক্ষার্থীরা দাখিল, আলিম স্তরসহ ইসলামী আরবি বিশ্ববিদ্যালয়ের অধীনে ফাজিল, কামিল, আল-হাদিস অ্যান্ড ইসলামিক স্টাডিজ বিষয়ে অনার্স ও মাস্টার্সে কৃতিত্বের সঙ্গে মনোরম পরিবেশে লেখাপড়া করছে। এ মাদরাসা এতিম ও সহায়হীন পরিবারের সন্তানদের জন্য এক অনুপম আশ্রয়স্থল। সংবাদ বিজ্ঞপ্তি।

মন্তব্য



সাতদিনের সেরা