kalerkantho

বুধবার । ১৭ জুলাই ২০১৯। ২ শ্রাবণ ১৪২৬। ১৩ জিলকদ ১৪৪০

কান্তজিউ মন্দির পরিদর্শনে যুক্তরাষ্ট্রের রাষ্ট্রদূত

দিনাজপুর প্রতিনিধি   

২৬ জুন, ২০১৯ ০০:৩৩ | পড়া যাবে ২ মিনিটে



কান্তজিউ মন্দির পরিদর্শনে যুক্তরাষ্ট্রের রাষ্ট্রদূত

ছবি: কালের কণ্ঠ

বাংলাদেশে নিযুক্ত যুক্তরাষ্ট্রের রাষ্ট্রদূত আর্ল রবার্ট মিলার স্ব-স্ত্রীক দিনাজপুরের কান্তজিউ মন্দির পরিদর্শন করেছেন।
 
গতকাল মঙ্গবার বিকেল সাড়ে ৪টায় তিনি কান্তজিউ মন্দির পরিদর্শন করেন। এ সময় সেখানে তাঁকে স্বাগত জানিয়ে দিনাজপুরের জেলা প্রশাসক মো. মাহমুদুল আলম ও পুলিশ সুপার সৈয়দ আবু সায়েম কান্তজিউ মন্দির ঘুরে দেখান।
 
এ সময় আর্ল রবার্ট মিলার কান্তজিউ মন্দিরে সংরক্ষিত পরিদর্শন বইয়েও স্বাক্ষর করেন।
 
এ সময় তিনি স্থাপত্য শিল্পের উজ্জ্বল নিদর্শন টেরাকাটা অলঙ্কারের বৈচিত্র্যে এবং ইন্দো-পারস্য স্থাপনা কৌশল অবলম্বনে নির্মিত মন্দিরটি দেখে অভিভূত হন। তিনি বলেন, আজ আমার জন্মদিন। আর দিনটি এই মন্দির পরিদর্শনের মধ্য দিয়ে পালন করলাম। 
 
এ সময় তিনি বলেন, ঝড় বৃষ্টিসহ অনেক দুর্যোগের মন্দিরটি দাঁড়িয়ে আছে। যা আমাকে অভিভূত করেছে। এ সময় স্ত্রী মিখেল অ্যাডেলম্যান উপস্থিত ছিলেন। 
 
সাংবাদিকদের এক প্রশ্নের উত্তরে তিনি বলেন, রোহিঙ্গাদের আশ্রয় দিয়ে বাংলাদেশ মহানুভবতার পরিচয় দিয়েছে। একটি মানবিক বিপর্যয় থেকে তাদেরকে রক্ষা করেছে। যুক্তরাষ্ট্র রহিঙ্গাদের ফেরত পাঠানো এবং সে দেশে যেন তারা নিরাপদে বসবাস করতে পারে সে জন্য মিয়ানমারকে চাপ সৃষ্টি করবে।
 
তিনি বলেন, এই সরকারের শেষ পাঁচ বছরে অনেক ক্ষেত্রে সরকার ভালো করেছে। দেশের উন্নয়ন হয়েছে। তারা এই অবস্থায় সন্তুষ্ট।
 
এ সময় কাহারোল উপজেলার নির্বাহী অফিসার মো. নাসিম আহম্মেদ, দিনাজপুর রাজদেবত্তর এ্যাস্টেটের সদস্য সুব্রত মজুমদার ডলার, দিনাজপুর প্রেস ক্লাবের সাবেক সভাপতি চিত্তঘোষ ও সাধারণ সম্পাদক গোলাম নবীদুলাল প্রমুখ উপস্থিত ছিলেন।
 
এর আগে যুক্তরাষ্ট্রের রাষ্ট্রদূত আর্ল রবার্ট মিলার লালমনিরহাট জেলায় যুক্তরাষ্ট্রের নৌবাহিনী ও বাংলাদেশের নৌবাহিনী আয়োজিত মেডিক্যাল ক্যাম্প ও দুটি স্কুলের অবকাঠামো পরিদর্শন করেন। যেখানে বাংলাদেশিসহ বিদেশি ১০ জন চিকিৎসক ৬ হাজার মানুষকে সেবা দিয়েছেন এবং স্কুল দুটির অবকাঠামোর উন্নয়ন করে দিয়েছেন।

মন্তব্য



সাতদিনের সেরা