kalerkantho

বুধবার । ২৪ জুলাই ২০১৯। ৯ শ্রাবণ ১৪২৬। ২০ জিলকদ ১৪৪০

ধুনটে ছাত্রলীগ নেতাকে কুপিয়ে জখম, আটক ১

ধুনট (বগুড়া) প্রতিনিধি   

২৫ জুন, ২০১৯ ০৪:৫৯ | পড়া যাবে ২ মিনিটে



ধুনটে ছাত্রলীগ নেতাকে কুপিয়ে জখম, আটক ১

আব্দুল লতিফ

বগুড়ার ধুনট উপজেলায় প্রতিপক্ষের রামদার কোপে আব্দুল লতিফ (২৫) নামে ছাত্রলীগের এক নেতা আহত হয়েছে। আব্দুল লতিফ উপজেলার মাঠপাড়া গ্রামের মেহের আলীর ছেলে এবং ধুনট ইউনিয়ন ছাত্রলীগের সাধারণ সম্পাদক। সোমবার বিকেল ৪টার দিকে ধুনট শহরের জিরো পয়েন্ট এলাকায় এ ঘটনা ঘটে।
 
এ ঘটনায় শহরের জিরো পয়েন্ট এলাকা থেকে শামীম হোসেন (২৮) নামে এক ব্যবসায়ীকে আটক করেছে পুলিশ। শামীম হোসেন ধুনট পৌর এলাকার চরধুনট গ্রামের জসিম উদ্দিনের ছেলে এবং সোনালী নিউ মার্কেটের জুতা ব্যবসায়ী।
 
থানা পুলিশ ও স্থানীয় সূত্রে জানা যায়, ছাত্রলীগ নেতা আব্দুল লতিফের সঙ্গে ধুনট পৌর এলাকার চরধুনট গ্রামের ভুলু মিয়ার ছেলে রানা আহম্মেদের সঙ্গে পূর্ব থেকে বিরোধ রয়েছে। সোমবার বিকেলের দিকে আব্দুল লফিতকে মুঠোফোনে ধুনট শহরের জিরো পয়েন্ট এলাকায় ডেকে নেয় রানা। এরপর পূর্ব পরিকল্পনা অনুযায়ী রানা ও তার লোকজন আব্দুল লতিফকে কুপিয়ে জখম করে।
 
সংবাদ পেয়ে ছাত্রলীগের নেতাকর্মীরা আহত আব্দুল লতিফকে ঘটনাস্থল থেকে উদ্ধার করে উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে ভর্তি করেছে। এ ঘটনায় আব্দুল লতিফ বাদী হয়ে রানা আহম্মেদ সহ ৩ জনের বিরুদ্ধে ধুনট থানায় একটি লিখিত দিয়েছে। এ ঘটনার পর মুঠোফোনে যোগাযোগ করে রানা আহম্মেদের বক্তব্য পাওয়া যায়নি।
 
এ বিষয়ে আব্দুল লতিফ বলেন, রানার নিকট থেকে ১ হাজার ৫০০ টাকা পাওনা আছি। সেই টাকা পরিশোধের কথা বলে আমাকে ডেকে নিয়ে রানা ও তার লোকজন কুপিয়ে জখম করে আমার নিকট থেকে সাড়ে ৭৫ হাজার টাকা ছিনিয়ে নিয়েছে।
 
ধুনট থানার ডিউটি অফিসার সহকারী উপ-পরিদর্শক (এএসআই) শাহজাহান আলী বলেন, এ ঘটনার সঙ্গে জড়িত থাকার অভিযোগে শামীম হোসেন নামে এক যুবককে জিজ্ঞাসাবাদের জন্য আটক করা হয়েছে।

মন্তব্য



সাতদিনের সেরা