kalerkantho

মঙ্গলবার। ১৬ জুলাই ২০১৯। ১ শ্রাবণ ১৪২৬। ১২ জিলকদ ১৪৪০

জামালপুরে ভূমিখাতে অনিয়ম-দুর্নীতি বন্ধে মানববন্ধন

জামালপুর প্রতিনিধি   

২৪ জুন, ২০১৯ ১৯:১০ | পড়া যাবে ২ মিনিটে



জামালপুরে ভূমিখাতে অনিয়ম-দুর্নীতি বন্ধে মানববন্ধন

ভূমিখাতে অনিয়ম, ডিজিটাল ভূমি জরিপ ও নিবন্ধনে হয়রানি বন্ধ এবং জবাবদিহিতামূলক ও স্বচ্ছ ভূমি ব্যবস্থাপনার দাবিতে জামালপুরে মানববন্ধন কর্মসূচি পালন করেছে টিআইবি, সচেতন নাগরিক কমিটি-সনাক ও ইয়ুথ এনগেইজমেন্ট অ্যান্ড সাপোর্ট-ইয়েস দল।

আজ সোমবার সকাল সাড়ে ১০টায় শহরের দয়াময়ী মোড়ে এ মানববন্ধনের আয়োজন করা হয়।

মানববন্ধনে সংক্ষিপ্ত আলোচনায় সভাপতিত্ব করেন সনাক জামালপুর শাখার সহসভাপতি অজয় কুমার পাল। এতে অন্যান্যের মধ্যে বক্তব্য রাখেন টিআইবির জামালপুর এলাকা ব্যবস্থাপক মো. আরিফ হোসেন, সনাক সদস্য অধ্যাপক আব্দুল হাই, তামান্না সালেহীন কবিতা, রনজিত বিশ্বাস খোকন, সাজ্জাত হুসেন, মেহেদী মাহমুদ খান শুভ্র, স্বজন সদস্য লোমাত জাহান, সাংবাদিক ফজলে ইলাহী মাকাম প্রমুখ। এতে গণমাধ্যমকর্মী, শিক্ষক, শিক্ষার্থী ও ইয়েস দলের সদস্যসহ বিভিন্ন শ্রেণি ও পেশার মানুষ অংশ নেন।

মানববন্ধনে বক্তারা বলেন, ভূমি ব্যবস্থাপনার প্রতিটি ধাপে অবাধে অনিয়ম, দুর্নীতি ও হয়রানি চলছে। রাজনৈতিক চাপ, প্রাতিষ্ঠানিক দুর্বলতা, কর্মকর্তাদের অসততার কারণে সেবা গ্রহীতারা প্রতিনিয়ত তাদের ন্যায্যসেবা থেকে বঞ্চিত হচ্ছেন। তাই সুশাসন নিশ্চিত করতে হলে ভূমিখাতে অনিয়ম, ডিজিটাল ভূমি জরিপ ও নিবন্ধনে হয়রানি বন্ধ এবং জবাবদিহিতামূলক ও স্বচ্ছ ভূমি ব্যবস্থাপনা প্রতিষ্ঠিত করতে বেশকিছু দাবি তুলের ধরেন বক্তারা।

মানববন্ধন থেকে তুলে ধরা দাবিগুলো হলো স্থানীয় পর্যায়ে ভূমি ব্যবস্থাপনার বিভিন্ন আধুনিক পদ্ধতি বিশেষ করে আইন ও জিজিটাল জরিপ ইত্যাদির সাথে ভূমি প্রশাসন ও ব্যবস্থাপনার সমন্বয় করতে হবে। ভূমি ব্যবস্থাপনার প্রধান সেবাসমূহ যেমন- জরিপ, নামজারি, নিবন্ধন, উন্নয়ন কর, খাসজমি বরাদ্দ, হাটবাজার ব্যবস্থাপনা, ভূমি সংক্রান্ত দেওয়ানি মামলা পরিচালনা ও নথিপত্র উত্তোলনে হয়রানি ও অনিয়ম বন্ধ করতে হবে। ভূমি খাতে বিভিন্ন সেবা পাওয়ার ক্ষেত্রে সেবামূল্যের সুনির্দিষ্ট তালিকা উন্মুক্ত স্থানে থাকতে হবে।

উপজেলা পর্যায়ে সব সেবা বিশেষ করে নামজারি, নিবন্ধনের তথ্য সরবরাহ সেবাসহ সকল সেবা ওয়ান স্টপ সার্ভিসের মাধ্যমে প্রদান করতে হবে। ভূমিসেবা সংক্রান্ত সকল লেনদেন ব্যাংকের মাধ্যমে করতে হবে। মাঠ পর্যায়ে যে সকল শূন্য পদ রয়েছে সেখানে দ্রুততম সময়ের মধ্যে নিয়োগের ব্যবস্থা করতে হবে।

মন্তব্য



সাতদিনের সেরা