kalerkantho

বুধবার । ১৭ জুলাই ২০১৯। ২ শ্রাবণ ১৪২৬। ১৩ জিলকদ ১৪৪০

ছাত্রী উত্ত্যক্তের প্রতিবাদ করায় যুবকের পা ভাঙল বখাটেরা

লক্ষ্মীপুর প্রতিনিধি    

২৪ জুন, ২০১৯ ১৭:২৯ | পড়া যাবে ৩ মিনিটে



ছাত্রী উত্ত্যক্তের প্রতিবাদ করায় যুবকের পা ভাঙল বখাটেরা

লক্ষ্মীপুরে স্কুলছাত্রীকে উত্ত্যক্তের প্রতিবাদ করায় নাছির উদ্দিন নামে এক যুবককে পিটিয়ে ডান পা ভেঙে দিয়েছে স্থানীয় বখাটেরা। এ সময় পিটুনিতে তার শরীরের বিভিন্ন অংশে রক্তাক্ত ও জখম হয়। এ ঘটনায় দুইজনকে আটক করা হলেও আজ সোমবার বিকেল পর্যন্ত থানায় কোনো মামলা হয়নি। তবে মামলার প্রস্তুতি চলছে বলে জানিয়েছেন চন্দ্রগঞ্জ থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) আবুল কালাম আজাদ।

স্থানীয়রা জানিয়েছে, রবিবার (২৩ জুন) বিকেলে সদর উপজেলার দক্ষিণ মান্দারী আমিন বাজার রোডের খলিল ভূঁইয়া বাড়ির দোকানের সামনে নাছিরকে মারধর করে বখাটেরা। নাছির একই এলাকার চুনু বেপারী বাড়ির আবদুল কুদ্দুসের ছেলে। তিনি ঢাকার একটি ফার্মেসিতে চাকরি করেন। এদিকে উন্নত চিকিৎসার জন্য তাকে লক্ষ্মীপুর সদর হাসপাতাল থেকে রবিবার রাতেই ঢাকার পঙ্গু হাসপাতালে পাঠানো হয়েছে। 

অন্যদিকে নাছিরকে মারধরের ঘটনার একটি ভিডিওটি ধারণ করে স্থানীয়রা। ভিডিওতে দেখা যায়, নাসির মাটিতে পড়ে আছেন। কেউ একজন বলছেন, ইভটিজিংয়ের প্রতিবাদ করায় তাকে মারধর করেছে বখাটেরা। এ সময় হামলাকারী নিজাম উদ্দিন ও তার সহযোগী রিয়াদকে আটক করে স্থানীয়রা। পরে তাদেরকে পুলিশের হাতে সোপর্দ করা হয়। 

জানা যায়, মান্দারী বহুমুখী উচ্চ বিদ্যালয়ের ৯ম শ্রেণির একছাত্রীকে বিদ্যালয়ে যাওয়া-আসার পথে কয়েকদিন ধরে বখাটে নিজাম উদ্দিন উত্ত্যক্ত করে আসছে। নিজাম দিঘলী ইউনিয়নের দুর্গাপূর গ্রামের কামালের ছেলে। ওই স্কুলছাত্রী এবং আহত নাছির আত্মীয়। ঢাকা থেকে ছুটি নিয়ে নাছির বাড়িতে বেড়াতে আসে। গত কয়েকদিন স্কুলছাত্রীকে উত্ত্যক্তের বিষয়টি তার (নাছির) নজরে আসে। ঘটনার দিন স্কুল শেষে বাড়ি ফিরছিলেন ওই ছাত্রী। এ সময় নিজামও তার পিছু নেয়। এতে নাছির ঘটনাস্থলে নিজামকে বাধা দেয়। এ সময় নাছিরের ওপর নিজাম ক্ষিপ্ত হয়ে ওঠে। পরে নিজাম তার ৪ সহযোগীকে ডেকে আনে। একপর্যায়ে নিজাম ও তার সহযোগীরা নাছিরকে পিটিয়ে জখম করে। আহত অবস্থায় তাকে উদ্ধার করে হাসপাতালে নেওয়া হয়।। পিটুনিতে তার বাম পা ও কোমরসহ শরীরের বিভিন্ন অংশে রক্তাক্ত জখম হয়। 

এ ব্যাপারে চেষ্টা করেও হামলার শিকার নাছির উদ্দিনের সঙ্গে কথা বলা সম্ভব হয়নি। তবে তার স্বজনরা জানিয়েছেন, স্কুলছাত্রীকে উত্ত্যক্তের প্রতিবাদ করায় নির্দয়ভাবে পিটিয়ে তার পা ভেঙে দেওয়া হয়েছে। হামলাকারীরা স্থানীয় বখাটে হিসেবে চিহ্নিত।

সদর হাসপাতালের কর্তব্যরত চিকিৎসক কমলা শীষ রায় বলেন, নাছিরের ডান পা ভেঙে গেছে। বাম পা ও কোমরসহ শরীরের বিভিন্ন অংশে রক্তাক্ত জখম হয়েছে। উন্নত চিকিৎসার জন্য তাকে ঢাকার পঙ্গু হাসপাতালে পাঠানো হয়। 

চন্দ্রগঞ্জ থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) আবুল কালাম আজাদ বলেন, যুবককে মারধরের ঘটনায় দুইজনকে আটক করা হয়েছে। এ ঘটনায় মামলার প্রস্তুতি চলছে। ঘটনাটি তদন্ত চলছে। 

মন্তব্য



সাতদিনের সেরা