kalerkantho

মঙ্গলবার। ১৬ জুলাই ২০১৯। ১ শ্রাবণ ১৪২৬। ১২ জিলকদ ১৪৪০

চার বছরের শিশু ধর্ষণের শিকার, হাসপাতালে ভর্তি

রাজৈর (মাদারীপুর) প্রতিনিধি    

২০ জুন, ২০১৯ ১৮:২০ | পড়া যাবে ২ মিনিটে



চার বছরের শিশু ধর্ষণের শিকার, হাসপাতালে ভর্তি

রাজৈর উপজেলা সংলগ্ন মুকসেদপুর উপজেলার উত্তর গঙ্গরামপুর গ্রামে চার বছরের এক শিশু ধর্ষণের শিকার হয়েছে। এই ঘটনায় নির্যাতিতা শিশুকে প্রথমে রাজৈর উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে ভর্তি করা হয়। পরে উন্নত চিকিৎসার জন্য মাদারীপুর সদর হাসপাতালে ভর্তি করা হয়েছে।

হাসপাতাল ও স্থানীয় সূত্রে জানা গেছে, বুধবার দুপুরে মুকসুদপুর উপজেলার উত্তর গঙ্গরামপুর গ্রামের এক দিনমজুরের শিশু কন্যাকে একই গ্রামের এমারত মোড়লের ছেলে আর্থিন মোড়ল (১৫) বাড়ির পাশের পাটক্ষেতে নিয়ে পাশবিক নির্যাতন করে। পরে নির্যাতিতার মা টের পেলে শিশুটিকে ফেলে রেখে পালিয়ে যায়। পরে স্থানীয় কয়েক সালিশদার বিষয়টি সালিশ মীমাংসার চেষ্টা করে। এই ঘটনায় নির্যাতিতা শিশুর মা শিশুটিকে প্রথমে রাজৈর উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে ভর্তি করে। পরে তাকে উন্নত চিকিৎসার জন্য বুধবার রাতে মাদারীপুর সদর হাসপাতালে ভর্তি করে।

নির্যাতিতা শিশুর মা বলেন, ওই ছেলে বাড়ি থেকে ডেকে নিয়ে আমার মেয়ের সাথে খারাপ কাজ করেছে। পরে আমি বাড়ির পাশের পাটক্ষেতে গিয়ে দেখি আমার মেয়ে উলঙ্গ অবস্থায় পরে আছে। আমাকে দেখে ওই ছেলে পালিয়ে গেছে। আমরা গরিব মানুষ। প্রথমে এলাকার লোকজন সালিশ করে দিবে বলেছিল। পরে আর কিছু করেনি। আমি এর বিচার চাই।

এ ব্যাপারে স্থানীয় মাতুব্বর ফিরোজ মল্লিক বলেন, বিষয়টি আমি জানি। সত্য ঘটনা তো চাপা থাকে না। অনেকেই চেয়েছিল সালিশের নামে ঘটনাটি ধামাচাপা দিতে। আমি মেয়েটিকে হাসপাতালে ভর্তি করে থানায় মামলা করার পরামর্শ দিয়েছি। ওই ছেলে এর আগেও একটি মেয়ের সাথে এমন ঘটনা ঘটিয়েছে। ছেলের চরিত্র ভালো না।

মাদারীপুর সদর হাসপাতালের ওয়ান স্টপ ক্রাইসিস সেলের প্রোগ্রাম অফিসার মিনারা হোসেন বলেন, ধর্ষণ জনিত ঘটনা নিয়ে মাদারীপুর সদর হাসপাতালে একটি শিশু ভর্তি হয়েছে। বিভিন্ন আলামত সংগ্রহ করা হয়েছে।

সিন্দিয়াঘাট ফাঁড়ির ইনচার্জ আবুল বাসার জানান, আমি খবর পেয়ে ঘটনাস্থল ও হাসপাতালে শিশুটিকে দেখতে গিয়েছিলাম। এ ব্যাপারে অভিযোগ পেয়েছি। মামলা প্রক্রিয়াধীন।

মন্তব্য



সাতদিনের সেরা