kalerkantho

মঙ্গলবার। ১৬ জুলাই ২০১৯। ১ শ্রাবণ ১৪২৬। ১২ জিলকদ ১৪৪০

পাচার হওয়া সেই কিশোরকে ফেরত দিল বিএসএফ

কুলাউড়া (মৌলভীবাজার) প্রতিনিধি   

২০ জুন, ২০১৯ ০০:০৪ | পড়া যাবে ২ মিনিটে



পাচার হওয়া সেই কিশোরকে ফেরত দিল বিএসএফ

তামিম আহমদ

শিরনী খাওয়ার কথা বলে এক কিশোরকে বাড়ি থেকে ডেকে এনে ভারতে পাচার হওয়ার দুই দিন পর বুধবার সন্ধ্যায় বাংলাদেশি সীমান্তরক্ষী বাহিনী বিজিবি’র কাছে পাচারকৃত কিশোরকে ফেরৎ দিয়েছে ভারতীয় সীমান্তরক্ষী বাহিনী বিএসএফ।

এ ঘটনায় কুলাউড়া থানায় নারী ও শিশু নির্যাতন আইনে ৫ জনকে বিবাদী করে মামলা করেছেন শিশুটির নানা তাহির আলী। এ মামলায় গ্রেপ্তার দেখানো হয়েছে ঘটনার সঙ্গে সম্পৃক্ত মইনুলের বাবা মছব্বির আলীকে।

কুলাউড়া উপজেলার পৃথিমপাশা ইউনিয়নের সীমান্তবর্তী শিকড়িয়া গ্রামের তামিম আহমদ (৯) নামক ওই কিশোরকে গত সোমবার জোরপূর্বক ভারতে পাচার করে চার বাংলাদেশি নাগরিক। ঘটনার সঙ্গে ভারতের চার নাগরিকও জড়িত রয়েছে বলে জানিয়েছে বিজিবি ও পুলিশ।

এ ঘটনায় মঙ্গলবার ও বুধবার বাংলাদেশ সীমান্তরক্ষী বাহিনী (বিজিবি) ও ভারতীয় সীমান্তরক্ষী বাহিনী (বিএসএফ)-এর মধ্যে আলীনগর সীমান্তে দফায় দফায় বৈঠক হয়। অবশেষে ১৯ জুন বুধবার সন্ধ্যা ৬টায় পতাকা বৈঠক করে সকল কার্যপ্রক্রিয়া শেষে ভারতীয় সীমান্তরক্ষীদের কাছ থেকে কিশোরকে গ্রহণ করেন আলীনগর বিজিবি ক্যাম্পের কোম্পানি কমান্ডার সুবেদার আলমগীর হোসেন।

জানা যায়, সোমবার শিরনী খাওয়ার কথা বলে শিকড়িয়া গ্রামের আব্দুর রহমানের ছেলে তামিম আহমদকে বাড়ি থেকে নিয়ে যায় একই গ্রামের মছব্বির আলীর ছেলে মইনুল, আব্দুল মন্নানের ছেলে সাজু, মৃত মনির মিয়ার ছেলে শফিক, মৃত রফিক মিয়ার ছেলে ফরমান। পরে ভারতীয় নাগরিক আহমদ, আব্দুল, আবুল, তৌর মিয়ার সহযোগিতায় কাঁটাতারের বেড়ার ওপর দিয়ে ভারতে নেওয়া হয়। পরে ভারত থেকে ফোন দিয়ে ২ লাখ ৩০ হাজার টাকা মুক্তিপণ দাবি করে আব্দুল নামের এক ভারতীয় নাগরিক।

কুলাউড়া থানার তদন্ত ওসি সঞ্জয় চক্রবর্তী কালের কণ্ঠকে জানান, ‘নয় বছরের এক শিশুকে চার যুবক মিলে ভারতে পাঠিয়েছিল। ইতিমধ্যে বিজিবি-বিএসএফের মধ্যে পতাকা বৈঠক করে শিশুটিকে হস্তান্তর করা হয়েছে। এ ঘটনায় থানায় মামলা হয়েছে। 

এ বিষয়ে শ্রীমঙ্গল ৪৬ বিজিবি কমান্ডার লেফটেন্যান্ট কর্নেল আরিফুল হক জানান, ‘ঘটনাকারীরা চোরাকারবারি দলের সক্রিয় সদস্য। চোরাকারবারিদের মধ্যে টাকা পয়সার লেনদেন নিয়ে এ ঘটনা ঘটেছে। তাও পরিবারিক দ্বন্দ্বের কারণে। আমরা বিএসএফকে সব তথ্য দিয়েছি। মঙ্গল ও বুধবার ৩ দফা ভারতীয় বিএসএফ’র সঙ্গে বৈঠকের পর কিশোর তামিম আহমদকে আনুষ্ঠানিকভাবে বিজিবি’র নিকট হস্তান্তর করা হয়েছে।

মন্তব্য



সাতদিনের সেরা