kalerkantho

মঙ্গলবার। ১৬ জুলাই ২০১৯। ১ শ্রাবণ ১৪২৬। ১২ জিলকদ ১৪৪০

জমি নিয়ে বিরোধ, বৃদ্ধ মাকে পেটাল দুই ছেলে!

রায়পুরা (নরসিংদী) প্রতিনিধি   

১৬ জুন, ২০১৯ ১৭:৩২ | পড়া যাবে ২ মিনিটে



জমি নিয়ে বিরোধ, বৃদ্ধ মাকে পেটাল দুই ছেলে!

জোবেদা বেগম (৭০) নামে পাঁচ সন্তানের এক জননী দুই ছেলের অমানবিক নির্যাতনের শিকার হয়ে সরকারি হাসপাতালে ভর্তি হয়েছেন। বর্তমানে তিনি উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সের দ্বিতীয় তলার মহিলা ওয়ার্ডের (০৬ নং বেডে) চিকিৎসা নিচ্ছেন।

এই অমানবিক ঘটনাটি ঘটে গত শুক্রবার নরসিংদীর রায়পুরা উপজেলার উত্তর বাখরনগর ইউনিয়নের রতনপুর গ্রামে। তিনি রতনপুর গ্রামের মৃত নুরুল ইসলামের স্ত্রী। অভিযুক্ত পাষণ্ড দুই ছেলের হলেন মো. শহিদুল্লাহ ও মো. শাহীন উল্লাহ। ওই জননীর পাঁচ ছেলের মধ্যে শহিদুল্লাহ্ প্রথম ও শাহীন চতুর্থ।

এ ঘটনার পর শনিবার রাতে অপর ভাই মো. সাফিউল্লাহ্ বাদি হয়ে অভিযুক্ত দুই ভাইকে আসামি করে রায়পুরা থাকায় একটি মামলা দায়ের করেন।

পরিবার ও স্বজনদের সাথে কথা বলে জানা যায়, স্বামী নুরুল ইসলামের মৃত্যুর পর তিনি ছেলেদের সাথেই থাকতেন। তার নামে স্বামীর রেখে যাওয়া জমি নিয়ে অভিযুক্ত ছেলেদের বিরোধ দেখা দেয়। জমি না পেয়ে গত বছর মাকে তারা পিটিয়ে বাড়ি ছাড়া করেন। গেল রমজানে তৃতীয় ছেলে সাফিউল্লাহর অনুরোধে তিনি বাড়ি ফিরে আসেন। খবর পেয়ে ওই দুই ছেলে আবারও বৃদ্ধ মা ও ভাইয়ের ওপর ক্ষুব্ধ হয়ে ওঠেন। এরই জের ধরে গত শুক্রবার রাতে দুই ছেলে মিলে তাকে পিটিয়ে আহত করেন। পরে তাকে উদ্ধার করে হাসপাতালে ভর্তি করান ছেলে সাফিউল্লাহ্। এই ঘটনায় অভিযুক্তদের বিরুদ্ধে থানায় মামলা দায়ের করা হয়েছে।

ঘটনার সত্যতা নিশ্চিত করে সাফিউল্লাহ্ কালের কণ্ঠকে জানান, সম্পত্তির লোভে দুই ভাই মিলে মার ওপর নির্যাতন চালিয়েছে। তিনি এখন হাসপাতালে চিকিৎসা নিচ্ছেন এবং এই ঘটনায় তিনি নিজে বাদি হয়ে দুই ভাইয়ের বিরোধে থানায় মামলা করেছেন বলেন জানান।

এ ব্যাপারে রায়পুরা থানার অফিসার ইনচার্জ (ওসি) মহসিনুল কাদিরের সাথে মুঠোফোনে কথা হলে তিনি এ বিষয়ে কথা বলতে রাজি হননি।

মন্তব্য



সাতদিনের সেরা