kalerkantho

বুধবার । ২৪ জুলাই ২০১৯। ৯ শ্রাবণ ১৪২৬। ২০ জিলকদ ১৪৪০

যমুনায় অবৈধ ড্রেজার মুক্ত ঘোষণা করলেন এসিল্যান্ড

মানিকগঞ্জ প্রতিনিধি   

১৫ জুন, ২০১৯ ২১:৪৮ | পড়া যাবে ২ মিনিটে



যমুনায় অবৈধ ড্রেজার মুক্ত ঘোষণা করলেন এসিল্যান্ড

মানিকগঞ্জের শিবালয়ে যমুনা নদীতে পাটুরিয়া ঘাট থেকে জাফরগঞ্জের ঘোষ বাড়ি খাল পর্যন্ত বিভিন্ন পয়েন্টে দীর্ঘদিন যাবৎ অবৈধ ড্রেজার মেশিন বসিয়ে বালু উত্তোলন করে তা বিক্রয় করে আসছিলেন স্থানীয় একটি প্রভাবশালী মহল। মাঝে মধ্যে প্রশাসনের পক্ষ থেকে অভিযান চালিয়ে বালু উত্তোলনের ড্রেজার পাইপ ধ্বংস করলেও কয়েক দিন পর আগের মতোই চলতে থাকে এ অবৈধ বালু ব্যবসা।

আজ শনিবার সকাল থেকে সন্ধ্যা পর্যন্ত ভ্রাম্যমান আদালত পরিচালনা করে উপজেলার যমুনা নদীর বিভিন্ন পয়েন্টে ১২টি ড্রেজার মেশিনসহ তিন হাজার পাইপ ধ্বংস করে উপজেলা সহকারী কমিশনার (ভূমি) ও ভ্রাম্যমান আদালতের নির্বাহী ম্যাজিস্ট্রেট মো. জাকির হোসেন। এ সময় তিনি শিবালয় উপজেলাকে অবৈধ ড্রেজার দিয়ে বালু ব্যবসাকে নিষিদ্ধ ঘোষণা করেন।

এসিল্যান্ড জাকির হোসেন জানান, একটি সংঘবদ্ধ চক্র দীর্ঘদিন ধরে যমুনা নদীর বিভিন্ন পয়েন্টে ড্রেজার মেশিন দিয়ে বালু উত্তোলন করে বিক্রয় করে আসছিল। ইতিমধ্যে স্থানীয় পর্যায়ে খোঁজ-খবর নিয়ে যারা এ অবৈধ ব্যবসার সাথে জড়িত তাদের নামের তালিকা তৈরি করা হয়েছে। শনিবার সকাল থেকে সন্ধ্যা পর্যন্ত উপজেলার তেওতা, জাফরগঞ্জ, গাবতলীর খাল, ঘোষ বাড়ির খাল, দুবুলীয়া এলাকায় অন্তত ১২ ড্রেজার মেশিন ও তিন হাজার পাইপ ধ্বংস করা হয়েছে। এ সকল অবৈধ ব্যবসায়ীদের বিরুদ্ধে নিয়মিত মামলার প্রস্তুতিও নেওয়া হয়েছে। ভবিষ্যতে যাতে কেউ নদী থেকে বালু উত্তোলন না করতে পারে তার জন্য স্থানীয়দের নিয়ে একটি কমিটি করে এদের বিরুদ্ধে প্রতিরোধ গড়ে তোলা হবে। আর মোবাইল কোর্ট নিয়মিত চলবে। এর পর থেকে শিবালয় উপজেলাকে অবৈধ ড্রেজার মুক্ত ঘোষণা করা হলো বলে তিনি জানান।

মন্তব্য