kalerkantho

রবিবার। ১৬ জুন ২০১৯। ২ আষাঢ় ১৪২৬। ১২ শাওয়াল ১৪৪০

চুনারুঘাটে স্বাসরুদ্ধ করে স্ত্রীকে হত্যা

হবিগঞ্জ প্রতিনিধি   

১২ জুন, ২০১৯ ১৮:০৪ | পড়া যাবে ২ মিনিটে



চুনারুঘাটে স্বাসরুদ্ধ করে স্ত্রীকে হত্যা

হবিগঞ্জের চুনারুঘাটে শ্বাসরুদ্ধ করে স্ত্রীকে হত্যার অভিযোগ ওঠেছে এক স্বামীর বিরুদ্ধে। বুধবার সকাল ৮টায় এ ঘটনাটি ঘটেছে। নিহতের নাম রীনা আক্তার। তার বয়স আনুমানিক ৩৫। ‘ঘাতক’ স্বামী মো. ফরিদ মিয়া (৪০) উপজেলার মিরাশী ইউনিয়নের আদমপুর গ্রামের বাসিন্দা। রীনা আক্তারের মরদেহ হবিগঞ্জ আধুনিক জেলা সদর হাসপাতাল মর্গে প্রেরণ করা হয়েছে।

পুলিশ ও প্রত্যক্ষদর্শী সূত্রে জানা যায়, রীনা আক্তার তার স্বামী ফরিদ মিয়াকে নিয়ে সাবেক উপজেলা মহিলা ভাইস চেয়ারম্যান কাজী সাফিয়া খাতুনের বাসা ভাড়া থাকতেন। পৌরশহরের বাল্লা রোডের মানিক মিয়ার হোটেলে রীনা আক্তার মসলা বাটা ও রান্নাবান্না করতেন। রীনা প্রতিদিনই সকাল ৮টার মধ্যে হোটেলে আসতেন। বুধবার সকাল সকাল ৯টা বেজে গেলেও রীনা হোটেলে আসেন না। তাই হোটেলের লোকেরা রীনাকে বাসায় ডাকতে যায়। বাড়িতে গিয়ে রীনার কোন সাড়াশব্দ না পেয়ে ঘরের দরজা ভেঙে ঘরে প্রবেশ করে তারা দেখতে পান রীনার মরদেহ। তৎক্ষণাৎ চুনারুঘাট থানা পুলিশকে খবর দেওয়া হয়। পুলিশ মরদেহ উদ্ধার করে হবিগঞ্জ আধুনিক জেলা হাসপাতাল মর্গে প্রেরণ করে।

এ ব্যাপারে চুনারুঘাট থানার ভারপ্রাপ্ত (ওসি) কে এম আজমিরুজ্জামান ঘটনার সত্যতা স্বীকার করে জানান, রীনা আক্তারকে শ্বাসরুদ্ধ করে হত্যা করা হয়েছে। আমরা জানতে পারি রীনা আক্তারের আরেকটি বিয়ে হয়ে ছিল। আগের স্বামীর সম্পর্ক বিচ্ছেদ করে ফরিদ মিয়াকে বিবাহ করেন তিনি। প্রায়ই ফরিদ মিয়া রীনা আক্তারকে শারীরিক নির্যাতন করতেন বলে তিনি জানান।

মন্তব্য



সাতদিনের সেরা