kalerkantho

মঙ্গলবার । ২৫ জুন ২০১৯। ১১ আষাঢ় ১৪২৬। ২২ শাওয়াল ১৪৪০

নিম্নমানের লাচ্ছা সেমাইয়ে সয়লাব নন্দীগ্রাম

নন্দীগ্রাম (বগুড়া) প্রতিনিধি   

২৬ মে, ২০১৯ ১৪:৩১ | পড়া যাবে ২ মিনিটে



নিম্নমানের লাচ্ছা সেমাইয়ে সয়লাব নন্দীগ্রাম

অস্বাস্থ্যকর পরিবেশে নিম্নমানের উপাদানে তৈরি হচ্ছে লাচ্ছা সেমাই। ছবি : কালের কণ্ঠ

ঈদকে সামনে রেখে বগুড়ার নন্দীগ্রাম উপজেলায় ভেজাল লাচ্ছা সেমাই তৈরির ধুম পড়েছে। স্বাস্থ্যের জন্য ক্ষতিকর ও ঝুঁকিপূর্ণ উপকরণ দিয়ে নোংরা ও অস্বাস্থ্যকর পরিবেশে তৈরি করা হচ্ছে এ সব লাচ্ছা সেমাই।

এলাকার কয়েকজন বাসিন্দার সঙ্গে কথা বলে জানা গেছে, ঈদ সামনে রেখে উপজেলার বিভিন্ন গ্রামে গড়ে উঠেছে লাচ্ছা সেমাইয়ের কারখানা। যত্রতত্র লাচ্ছা সেমাই তৈরির মৌসুমি ব্যবসায়ীরা সক্রিয় হয়ে উঠেছেন। প্রতিবছরই ঈদে এসব মৌসুমি ব্যবসায়ী কোনো সরকারি নিয়মনীতির তোয়াক্কা না করে তৈরি করছেন লাচ্ছা সেমাই।

অনুসন্ধানে জানা গেছে, অধিকাংশ কারখানা বিএসটিআইয়ের অনুমোদন ছাড়া প্রতিষ্ঠিত অনেক কম্পানির লেবেল লাগিয়ে লাচ্ছা সেমাই বাজারজাত করছে। মানুষের খাওয়ার জন্য অত্যন্ত ঝুঁকিপূর্ণ এসব লাচ্ছা সেমাই উপজেলার বিভিন্ন হাটবাজার ছাড়াও পার্শ্ববর্তী উপজেলাতেও অবাধে পাঠানো হচ্ছে। বিশেষ করে ভেজালবিরোধী অভিযান তৎপরতা না থাকায় যত্রতত্র লাচ্ছা সেমাই তৈরির ধুম পড়েছে। আর অধিক মুনাফার আশায় এসব লাচ্ছা সেমাইতে ব্যবহার করা হচ্ছে ব্যবহারের অনুপযোগী নিম্নমানের ময়দা, পামতেলসহ পোড়া তেল। উপজেলার সিংজানী, আইলপুনিয়াসহ বিভিন্ন স্থানে লাচ্ছা সেমাই তৈরির কারখানা চালু করা হয়েছে।

উপজেলা স্যানেটারি ইন্সপেক্টর জামিল আহম্মেদ বলেন, অস্বাস্থ্যকর পরিবেশে লাচ্ছা তৈরিসহ বিভিন্ন বিষয়ে জেলা ভোক্তা অধিকার দপ্তরে জানানো হয়েছে। অচিরেই অভিযান চালানো হবে। 

মন্তব্য