kalerkantho

মঙ্গলবার । ৩০ আষাঢ় ১৪২৭। ১৪ জুলাই ২০২০। ২২ জিলকদ ১৪৪১

ঈদকে সামনে রেখে প্রস্তুত কাঁঠালবাড়ী-শিমুলিয়া নৌরুট

কালের কণ্ঠ অনলাইন   

২৬ মে, ২০১৯ ১০:৪২ | পড়া যাবে ২ মিনিটে



ঈদকে সামনে রেখে প্রস্তুত কাঁঠালবাড়ী-শিমুলিয়া নৌরুট

দেশের ব্যস্ততম নৌরুট কাঁঠালবাড়ী-শিমুলিয়া। ঈদ মৌসুমে এই নৌরুটেই দক্ষিণ-পশ্চিমাঞ্চলের ২১ জেলার ঘরমুখো মানুষের ঢল নামে। তাই আসন্ন ঈদকে সামনে রেখে কাঁঠালবাড়ী-শিমুলিয়া নৌরুটে ১৮টি ফেরি, ৮৭টি লঞ্চ ও ২ শতাধিক স্পিডবোট চলাচল করবে বলে জানিয়েছে কাঁঠালবাড়ী ঘাট সূত্র।

বিআইডব্লিউটিসির কাঁঠালবাড়ী ফেরি ঘাট সূত্রে জানা গেছে, বর্তমানে এ নৌরুটে ৩টি রোরো ফেরি, ৬টি ফ্ল্যাট ফেরি, ৪টি কে-টাইপ ফেরি এবং ৩টি মিডিয়ামসহ মোট ১৬টি ফেরি চলাচল করছে। তবে ঈদের চাপ সামলাতে ২৬ রোজার দিকে আরো দুটি ফেরি যোগ করা হবে।

এছাড়া কাঁঠালবাড়ী লঞ্চ ঘাট সূত্রে জানা গেছে, স্বাভাবিক সময়ের চেয়ে ঈদে যাত্রীদের চাপ অত্যাধিক পরিমাণে বেড়ে যায়। তাই ঘরে ফেরা মানুষদের পারাপারে ব্যবহৃত হবে ৮৭টি লঞ্চ। ইতোমধ্যে ত্রুটিপূর্ণ ১০টি লঞ্চ মেরামতের জন্য ডকইয়ার্ডে রয়েছে। সেগুলোও যথাসময়ে নৌরুটে যুক্ত হবে বলে জানা গেছে।

এ ব্যাপারে কাঁঠালবাড়ী ফেরি ঘাটের টার্মিনাল সুপারিনটেন্ডেন্ট মো. ফারুক হোসেন বলেন, ঈদকে সামনে রেখে পর্যাপ্ত ফেরি রয়েছে। তাছাড়া নৌরুটে বর্তমানে নাব্য সংকট নেই। ফলে ফেরি চলাচলে ভোগান্তি এবার আশা করি হবে না। তবে ঈদের সময় যাত্রীদের অতিরিক্ত চাপ থাকে। সে সময় দূরপাল্লার যাত্রীদের জন্য লোকাল বাসগুলো ফেরি ঘাটের কাছে চলে আসে। এতে করে পরিবহন ওঠা-নামার পথে যানজটের সৃষ্টি হয়। এবার এই বিষয়টা নিয়ে ঊর্ধ্বতন কর্তৃপক্ষের সঙ্গে আলাপ করা হবে। যাতে করে নির্বিঘ্নে ফেরি থেকে পরিবহন আনলোড করা যায়।

বিআইডব্লিউটিসির কাঁঠালবাড়ী লঞ্চ ঘাটের ট্রাফিক ইন্সপেক্টর আক্তার হোসেন বলেন, যাত্রীদের নির্বিঘ্নে পারাপার করতে ৮৭টি লঞ্চ ঈদ মৌসুমে ব্যবহৃত হবে। ত্রুটিপূর্ণ লঞ্চগুলো মেরামতের জন্য পাঠানো হয়েছে। যেগুলো ঈদের আগেই নিয়ে আসা হবে। কোনো দুর্ঘটনা যাতে না ঘটে সেই লক্ষ্যে লঞ্চঘাটে কঠোর নজরদারি থাকবে।

মন্তব্য



সাতদিনের সেরা