kalerkantho

সোমবার। ১৭ জুন ২০১৯। ৩ আষাঢ় ১৪২৬। ১৩ শাওয়াল ১৪৪০

চকরিয়ায় ঈদবাজারে সন্ত্রাসী হামলা, দুইজন আটক

শপিং করতে গিয়ে ছুরিকাঘাতে ছাত্রলীগ কর্মী খুন

চকরিয়া (কক্সবাজার) প্রতিনিধি   

২৬ মে, ২০১৯ ০০:২৪ | পড়া যাবে ৩ মিনিটে



শপিং করতে গিয়ে ছুরিকাঘাতে ছাত্রলীগ কর্মী খুন

নিহত ছাত্রলীগ কর্মী আনাস ইব্রাহিম। ছবি: কালের কণ্ঠ

কক্সবাজারের চকরিয়ায় ঈদবাজারে শপিং করতে গিয়ে সন্ত্রাসীদের ছুরিকাঘাতে প্রাণ হারিয়েছে ছাত্রলীগ কর্মী কিশোর আনাস ইব্রাহিম। এ সময় আহত হয় আবদুল্লাহ নামে আরেক কিশোর। এর আগে মুমূর্ষু অবস্থায় দুইজনকে প্রথমে উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্স ও পরে চট্টগ্রাম মেডিক্যাল কলেজ হাসপাতালে নেওয়ার পথে চকরিয়া এলাকায় প্রাণ হারায় ওই কিশোর। শনিবার দিবাগত রাত ১০টার দিকে চকরিয়া পৌর শহরের চিরিঙ্গার বিপনী বিতান ওয়েস্টার্ণ প্লাজায় এ ঘটনা ঘটে। এদিকে ছুরিকাঘাতের ঘটনায় জড়িত সন্দেহে পুলিশ দুইজনকে আটক করেছে। 

নিহত কিশোরের নাম আনাস ইব্রাহিম (১৭)। সে চকরিয়া পৌরসভার ৬ নম্বর ওয়ার্ডের বিনামারা গ্রামের হাফেজ নেছার উদ্দিনের ছেলে। গুরুতর আহত হয় একই এলাকার আবদুল্লাহ নামের আরেক কিশোর। হতাহত দুইজনই একে অপরের বন্ধু।

চকরিয়া উপজেলা যুবলীগের সাধারণ সম্পাদক কাউছার উদ্দিন কছির জানান, ছুরিকাঘাতে নিহত আনাস ইব্রাহিম চলতি বছরের এসএসসি পরীক্ষায় ভালো ফলাফল করে। সে চকরিয়া কেন্দ্রীয় উচ্চ বিদ্যালয় শাখা ছাত্রলীগের একজন কর্মী ছিল। 

প্রত্যক্ষদর্শীরা জানায়, নিহত আনাস ইব্রাহিম ঈদের শপিং করার জন্য তার বন্ধু আবদুল্লাহকে নিয়ে চকরিয়া পৌর শহর চিরিঙ্গায় আসে। তারা ১০টার দিকে তারা শহরের ওয়াপদা সড়কের বিপনী বিতান ওয়েস্টার্ণ প্লাজায় ঢুকছিল। এ সময় আগে থেকে ওঁৎ পেতে থাকা ৭-৮ জনের একদল সন্ত্রাসী ধারাল ছুরি নিয়ে উপর্যুপরি কোপাতে থাকে আনাস ইব্রাহিম ও আবদুল্লাহকে। এতে আনাসের পেটে ছুরিকাঘাতে নাড়ি-ভুড়িও বের হয়ে যায়। আর আবদুল্লাহকে পেছন থেকে ছুরিকাঘাত করে সন্ত্রাসীরা।

তারা আরো জানায়, ধারাল অস্ত্রশস্ত্র নিয়ে দুই বন্ধুর ওপর এমন নৃশংস হামলা চালানোর সময় ওয়েস্টার্ণ প্লাজাসহ আশপাশের বিপনী বিতানগুলোতে আগত ক্রেতাসহ ব্যবসায়ীদের মাঝে আতঙ্ক ছড়িয়ে পড়ে। এতে বিপনী বিতানের ক্রেতা-সাধারণের মাঝে হুড়োহুড়ি পড়ে যায়।

কেন এই হামলা, জানতে চাইলে নিহত আনাসের কয়েকজন বন্ধু জানায়, পৌরসভার ৭ নম্বর ওয়ার্ডের পালাকাটা কাশেম মাস্টার পাড়ার রুবেলের সঙ্গে আনাসের মধ্যে তুচ্ছ একটি বিষয় নিয়ে বিরোধ দেখা দেয়। এ  নিয়ে সম্প্রতি দুইজনের মধ্যে মারামারির ঘটনাও ঘটে। সেই যাত্রায় আনাস বেঁচে যায়। কিন্তু রুবেল তখন থেকেই সুযোগ খুঁজছিল আনাসকে মারতে। সেই ধারাবাহিকতায় আনাস ঈদের শপিং করতে চিরিঙ্গা আসলে দলবল নিয়ে রুবেল সশস্ত্র অবস্থায় হামলে পড়ে আনাস ও তার বন্ধু আবদুল্লাহর ওপর। 

এ ব্যাপারে চকরিয়া থানার ওসি মো. হাবিবুর রহমান গত রাতে বলেন, পূর্ব শত্রুতার জের ধরে হামলার ঘটনাটি ঘটে। পুলিশ এ ঘটনায় দুইজনকে আটক করেছে। আরো যারা হামলার ঘটনায় জড়িত রয়েছে তাদেরকে আটক করতে পুলিশের অভিযান চলছে।

ওসি বলেন, নিহতের লাশ উদ্ধার করে ময়নাতদন্তের জন্য কক্সবাজার সদর হাসপাতাল মর্গে প্রেরণ করা হয়েছে। আহতকে প্রথমে উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্স ও পরে চট্টগ্রাম মেডিক্যাল কলেজ হাসপাতালে প্রেরণ করা হয়েছে।

মন্তব্য



সাতদিনের সেরা