kalerkantho

সোমবার। ১৭ জুন ২০১৯। ৩ আষাঢ় ১৪২৬। ১৩ শাওয়াল ১৪৪০

শিক্ষার্থীকে বলাৎকার, অভিযুক্ত ধর্মীয় শিক্ষক আটক

আঞ্চলিক প্রতিনিধি, পিরোজপুর   

২৫ মে, ২০১৯ ১৫:১৭ | পড়া যাবে ২ মিনিটে



শিক্ষার্থীকে বলাৎকার, অভিযুক্ত ধর্মীয় শিক্ষক আটক

পিরোজপুরের মঠবাড়িয়ায় ষষ্ঠ শ্রেণির শিক্ষার্থীকে (১২) যৌন নিপীড়ন ও বলাৎকারের অভিযোগে আলমগীর হোসেন (২৫) নামের গণশিক্ষা কার্যক্রমের ধর্মীয় শিক্ষককে আটক করেছে পুলিশ। শুক্রবার দিনগত রাতে উপজেলার আলগী পাতাকাটা গ্রাম থেকে তাকে আটক করা হয়। 

আটককৃত শিক্ষক আলমগীর উপজেলার ধানীসাফা ইউনিয়নের পাতাকাটা গ্রামের মজিবর মৃধার ছেলে। সে ওই গ্রামে ইসলামী ফাউন্ডেশনের গণশিক্ষা কার্যক্রমের মসজিদভিত্তিক ধর্মীয় শিক্ষক ও স্থানীয় একটি মসজিদে জুমার নামাজ ও তারাবির নামাজ পড়ান।

যৌন নিপীড়নের শিকার নির্যাতিত শিক্ষার্থীর নানা শুক্রবার রাতে বাদী হয়ে আলমগীর হোসেনের বিরুদ্ধে বলাৎকারের অভিযোগ এনে মঠবাড়িয়া থানায় একটি লিখিত অভিযোগ দায়ের করেছেন।

অভিযোগ সূত্রে জানা গেছে, গত ২৩ মে ইফতারের পর সন্ধ্যা সাড়ে ৭টার দিকে ওই শিক্ষার্থীকে ধর্মীয় পড়ালেখার সময় ফুসলিয়ে মসজিদের পুকুর ঘাটে নিয়ে যায়। সেখানে জোরপূর্বক ওই শিক্ষার্থীকে বলাৎকার করে। পরে বাড়িতে গিয়ে ওই শিক্ষার্থী তার নানার কাছে শিক্ষক কর্তৃক এ অনৈতিক ঘটনার কথা জানায়। পরে তার নানা থানায় গিয়ে অভিযুক্ত ধর্মীয় শিক্ষকের বিরুদ্ধে অভিযোগ দায়ের করেন। পুলিশ রাতেই অভিযুক্ত শিক্ষক আলমগীরকে আটক করে।

মঠবাড়িয়া থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) সৈয়দ আবদুল্লাহ জনান, নির্যাতিত শিক্ষার্থীর নানার অভিযোগের ভিত্তিতে মামলার প্রস্ততি চলছে। আটককৃত আলমগীরকে আদালতে সোপর্দ করা হবে। 

মন্তব্য



সাতদিনের সেরা