kalerkantho

মঙ্গলবার । ২৫ জুন ২০১৯। ১১ আষাঢ় ১৪২৬। ২২ শাওয়াল ১৪৪০

কক্সবাজারে জামায়াতের সংস্কারপন্থীদের মতবিনিময় সভা

‘আমরা কারো ঘরে আগুন দিতে বা আগুন নেভাতেও আসিনি’

নিজস্ব প্রতিবেদক, কক্সবাজার   

২৩ মে, ২০১৯ ০১:৫৬ | পড়া যাবে ২ মিনিটে



‘আমরা কারো ঘরে আগুন দিতে বা আগুন নেভাতেও আসিনি’

ছবি: কালের কণ্ঠ

জামায়াতের সংস্কারপন্থী গ্রুপ ‘জন আকাংখার বাংলাদেশ’-এর কেন্দ্রীয় নেতৃবৃন্দ বলেছেন- ‘আমরা কোনো দল ভাঙ্গার মিশন নিয়ে এখানে আসিনি। আমরা কারো ঘরে আগুন দিতে এবং আগুন নিভাতেও আসিনি।’ নেতৃবৃন্দ বলেন, এখন সময় এসেছে একটি কল্যাণমূলক দেশ গড়ার। নতুন দেশটি গড়তে দরকার একটি রাজনৈতিক উদ্যোগ। সেই উদ্যোগটিই মাত্র তারা নিয়েছেন বলে জানিয়েছেন।

গতকাল বুধবার কক্সবাজার সাগর পাড়ের একটি বিলাস বহুল হোটেলের সম্মেলন কক্ষে জামায়াতের সংস্কারপন্থী গ্রুপ ‘জন আকাংখার বাংলাদেশ’ আয়োজিত এক মতবিনিময় সভা ও ইফতার মাহফিলে বক্তারা এমন সব বলেন।

মতবিনিময় সভায় প্রধান অতিথি হিসাবে বক্তৃতা দিতে গিয়ে জন আকাংখার বাংলাদেশের সমন্বয়ক মুজিবুর রহমান মঞ্জু বলেন-‘আমরা তথ্য বা কোনো মতবাদের রাজনীতি করব না। আমরা রাজনীতি করব মানুষের অধিকার আদায়ের জন্য।’ তিনি বলেন, মুক্তিযুদ্ধের চেতনা ছিল সাম্য, মানবিক মর্যাদা ও ন্যায়বিচার প্রতিষ্ঠা করা। কিন্তু স্বাধীনতার ৪৭টি বছর অতিবাহিত হলেও এসব প্রতিষ্ঠা হয়নি।

সমন্বয়ক মুজিবুর রহমান মঞ্জু আরো বলেন, আমরা সেক্যুলার নই-আমরা আবার ইসলামী দলও করব না। আমরা ইসলামের অনুপ্রেরণা ধারণ করে কেবল ইসলামের কথা বলব। তিনি দেশের বর্তমান অবস্থা নিয়ে দুঃখ প্রকাশ করে বলেন, বাংলাদেশের মানুষ এখন আর দেশে ভোট আছে বলে বিশ্বাস করে না। এখন রাষ্ট্রটি চালাচ্ছে যেন পুলিশ ও সরকারি কর্মকর্তারা-যা হাস্যকর ব্যাপার হয়ে দাঁড়িয়েছে। তিনি আরো বলেন, মানুষের মনে ক্ষোভ আছে কিন্তু তারা তবুও রাস্তায় নামছে না।

মতবিনিময় সভায় চট্টগ্রাম কলেজের সাবেক শিবির নেতা জাহাঙ্গীর কাশেম সভাপতিত্ব করেন। এতে অন্যান্যের মধ্যে জামায়াত নেতা ও যুদ্ধাপরাধীদের নিয়োজিত আইনজীবী তাজুল ইসলাম, সাবেক সেনা কর্মকর্তা প্রফেসর মুহাম্মদ আবদুল ওয়াহাব মিনার, কক্সবাজারের জামায়াত নেতা অ্যাডভোকেট আবুল কালাম সিদ্দিকী, অ্যাডভোকেট গোলাম ফারুক খান কায়সার, জেবর মুলক, মাষ্টার শফিকুল হক, মাওলানা আবদুল আউয়াল প্রমুখ বক্তৃতা করেন। 

মতবিনিময় সভায় শতাধিক জামায়াত-শিবিরের নেতা-কর্মী ও সমর্থক উপস্থিত ছিলেন।

মন্তব্য



সাতদিনের সেরা