kalerkantho

বৃহস্পতিবার । ২০ জুন ২০১৯। ৬ আষাঢ় ১৪২৬। ১৬ শাওয়াল ১৪৪০

গোসলের গোপন ভিডিওর ফাঁদে ফেলে গৃহবধূকে ধর্ষণ, যুবক গ্রেপ্তার

কালের কণ্ঠ অনলাইন   

২২ মে, ২০১৯ ২২:০০ | পড়া যাবে ২ মিনিটে



গোসলের গোপন ভিডিওর ফাঁদে ফেলে গৃহবধূকে ধর্ষণ, যুবক গ্রেপ্তার

গোসলের ভিডিও গোপনে ধারণ করে রেখে পরে তা ছড়িয়ে দেওয়ার হুমকি দিয়ে গৃহবধূকে ধর্ষণের অভিযোগ উঠেছে। এ ঘটনায় অভিযুক্ত একজনকে গ্রেপ্তার করেছে পুলিশ।

ঘটনাটি ঘটেছে বরিশালের উজিরপুর উপজেলায়। মঙ্গলবার রাতে ওই গৃহবধূ চারজনের বিরুদ্ধে থানায় মামলা করার পর প্রধান আসামি মিলন রাঢ়ীকে (৩৫) গ্রেপ্তার করেছে পুলিশ।

পুলিশ জানিয়েছে, ওই গৃহবধূর গোসলের দৃশ্য ছয় মাস আগে গোপনে মোবাইল ফোনে ধারণ করেন মিলন। সেই ভিডিও ইন্টারনেটে ছড়িয়ে দেওয়ার হুমকি দিয়ে ওই গৃহবধূকে একাধিকবার তিনি ধর্ষণ করেছেন বলে অভিযোগ রয়েছে।

ওই গৃহবধূর অভিযোগ, মিলন তাকে কয়েক দিন আগে আবারো অসামাজিক কাজের প্রস্তাব দেন। এতে তিনি রাজি না হলে মিলন ক্ষুব্ধ হয়ে সেই ভিডিও তার স্বামীকে দেখান।

এরপর স্বামী-স্ত্রীর মধ্যে দাম্পত্য কলহ শুরু হয়। এদিকে গোপনে ভিডিও ধারণ ও ধর্ষণের বিষয়টি ধামাচাপা দিতে চলতি মাসের ১৭ তারিখ স্থানীয় ইউনিয়ন পরিষদের একজন সদস্য ও ছাত্রলীগের সাবেক এক নেতাসহ বেশ কয়েকজন ওই গৃহবধূর ভাড়া বাসায় যান। পরে তারা ওই নারীর স্বামীকে ১০ হাজার টাকা দিয়ে ঘটনাটি থানা-পুলিশকে না জানানোর কথা বলেন। এমনকি পুলিশের কাছে মুখ খুললে দু'জনেরই প্রাণনাশের হুমকি দেন তারা।

ওই নারীর স্বামী বলেন, উজিরপুরে বাসা ভাড়া নিয়ে থাকতেন তারা। স্থানীয় প্রভাবশালীদের কাছে ওই ১০ হাজার টাকা ফেরত দেওয়ার পর তাদেরকে বাসা থেকে তাড়িয়ে দেওয়া হয়। পরে মঙ্গলবার রাতে তার স্ত্রী মামলা করেছেন।

উজিরপুর মডেল থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) শিশির কুমার পাল বলেন, মঙ্গলবার রাতে নারী ও শিশু নির্যাতন দমন আইনে মামলা করেছেন ওই নারী। 

তিনি আরো বলেন, মামলায় মিলন রাঢ়ীকে প্রধান আসামি করা হয়েছে। অন্য আসামিরা হলেন, স্থানীয় ইউনিয়ন পরিষদের ছাত্রলীগের সাবেক সভাপতি সজীব শরীফ, স্থানীয় কালাম শরীফ ও ফরহাদ শরীফ। ইতোমধ্যেই প্রধান আসামিকে গ্রেপ্তার করে আদালতের মাধ্যমে জেলহাজতে পাঠানো হয়েছে বলেও জানান তিনি।

মন্তব্য