kalerkantho

মঙ্গলবার । ২৫ জুন ২০১৯। ১১ আষাঢ় ১৪২৬। ২২ শাওয়াল ১৪৪০

ঢাকার তরুণ সাংবাদিক ফাগুনের লাশ জামালপুরে রেললাইনের পাশে

জামালপুর প্রতিনিধি   

২২ মে, ২০১৯ ১৯:১৪ | পড়া যাবে ৩ মিনিটে



ঢাকার তরুণ সাংবাদিক ফাগুনের লাশ জামালপুরে রেললাইনের পাশে

এনটিভির শেরপুর জেলা প্রতিনিধি কাকন রেজার ছেলে প্রিয় ডটকমের সাব এডিটর ইহসান ইবনে রেজা ফাগুন এর লাশ জামালপুরের নান্দিনা রানাগাছা মধ্যপাড়া রেললাইনের কাছ থেকে উদ্ধার করেছে জিআরপি পুলিশ। মঙ্গলবার রাতে জামালপুর-নান্দিনা রেলস্টেশনের মাঝামাঝি কালিবাড়ী মধ্যপাড়া এলাকায় রেললাইনের পাশ থেকে তার লাশ উদ্ধার করা হয়।

আজ বুধবার বিকেলে জামালপুর সদর হাসপাতালের মর্গে ময়নাতদন্ত শেষে তার মরদেহ পরিবারের স্বজনদের কাছে হস্তান্তর করা হয়। তার বাড়ি শেরপুর সদরের চকবাজার এলাকায়।

পারিবারিক সূত্রে জানা গেছে, এহসান ইবনে রেজা ফাগুন শেরপুরে তার বাড়িতে যাওয়ার উদ্দেশে গতকাল মঙ্গলবার বিকেলে ঢাকা থেকে ট্রেনে রওনা হন। ট্রেন থেকে তার বাবা সাংবাদিক কাকন রেজার সাথে কথাও হয়েছে তার। কিন্তু এহসান রাতে শেরপুরে বাড়িতে ফিরে না যাওয়ায় পরিবারের স্বজনদের মাঝে উদ্বেগ দেখা দেয়। মঙ্গলবার রাতে এবং আজ সকালে পরিবারের স্বজনরা বিভিন্ন জায়গায় তাকে খোঁজাখুঁজি করেন।

জামালপুর রেলওয়ে থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) তাপস চন্দ্র পণ্ডিত কালের কণ্ঠকে জানান, মঙ্গলবার রাত সাড়ে ১২ টার দিকে জামালপুর-নান্দিনা রেলস্টেশনের মাঝামাঝি কালিবাড়ী মধ্যপাড়া এলাকায় রেললাইনের পাশে পড়ে থাকা অজ্ঞাত এক যুবকের লাশ উদ্ধার করা হয়। নিহতের পরনে ছিল ফুলহাতা শার্ট, জিন্সের প্যান্ট ও জুতা। লাশের শরীরে ট্রেনে কাটা বা অন্যকোনো আঘাতের চিহ্ন পাওয়া যায়নি।

তিনি আরো জানান, বুধবার সকালে ময়নাতদন্তের জন্য তার লাশ জামালপুর সদর হাসপাতালের মর্গে পাঠানো হয়। যথারীতি ময়নাতদন্ত শেষে লাশের সৎকারের জন্য আঞ্জুমান মফিদুল ইসলামকে খবর দেওয়া হয়। আঞ্জুমান মফিদুল ইসলাম কর্তৃপক্ষ মরদেহের কফিন তৈরি করে জানাজা ও দাফনের প্রস্তুতি নিচ্ছিল। এরই মধ্যে বিকেলে সাড়ে ৩ টার দিকে লাশটি সম্পর্কে জানতে চাইলে জিআরপি পুলিশের পক্ষ থেকে নিহতের বাবা কাকন রেজার কাছে তার ছেলের ছবি পাঠানো হয়। ওই ছবি দেখে কাকন রেজা লাশটি তার ছেলের বলে শনাক্ত করেন।

তিনি জানান, এ ব্যাপারে রেলওয়ে থানায় একটি অপমৃত্যুর মামলা দায়ের হয়েছে। লাশটি তার স্বজনদের কাছে হস্তান্তর করা হয়েছে।

শোকাহত সাংবাদিক কাকন রেজা কালের কণ্ঠকে বলেন, গতকাল মঙ্গলবার সন্ধ্যা সাড়ে ৭টার দিকে ময়মনসিংহের গফরগাঁও স্টেশন থেকে এহসান আমাকে ফোনে বলেছিল সে ট্রেনে বাড়ি আসছে। কিন্তু রাতে বাড়িতে না আসায় অনেক স্থানে খোঁজাখুঁজি করি। বুধবার সকালে তার খোঁজে ময়মনসিংহে যাই। এক পর্যায়ে জামালপুর রেলওয়ে থানার পুলিশ আমার কাছে ছবি পাঠালে তা দেখে আমি নিশ্চিত হই। সে কোন ট্রেনে আসছিল এবং কোনো অজ্ঞানপার্টির খপ্পরে পড়েছিল কিনা তা নিশ্চিত হওয়া যায়নি।  

মন্তব্য



সাতদিনের সেরা