kalerkantho

বুধবার। ১৯ জুন ২০১৯। ৫ আষাঢ় ১৪২৬। ১৫ শাওয়াল ১৪৪০

ঈদযাত্রায় চট্টগ্রাম থেকে ট্রেনের টিকিট বিক্রি শুরু

কালের কণ্ঠ অনলাইন   

২২ মে, ২০১৯ ১০:৪৫ | পড়া যাবে ২ মিনিটে



ঈদযাত্রায় চট্টগ্রাম থেকে ট্রেনের টিকিট বিক্রি শুরু

ফাইল ফটো

আসন্ন ঈদ উপলক্ষে ঘরেফেরা মানুষের জন্য নয়টি আন্তঃনগর ও দুটি স্পেশাল ট্রেনের অগ্রিম টিকিট বিক্রি শুরু হয়েছে চট্টগ্রাম রেল স্টেশনের ১০টি কাউন্টারে।

আজ বুধবার দেয়া হচ্ছে আগামী ৩১ মে-র টিকিট। সকাল ৯টা থেকে শুরু হয়ে বিকেল চারটা পর্যন্ত চট্টগ্রাম রেল স্টেশন থেকে এই টিকিট পাওয়া যাবে। পাশাপাশি পাওয়া যাবে অনলাইনেও।

চট্টগ্রাম রেল স্টেশন থেকে যেসব ট্রেনের টিকিট বিক্রি হচ্ছে সেগুলোর মধ্যে ৯টি আন্তঃনগর। সেগুলো হচ্ছে- সুবর্ণ, তূর্ণা, গোধূলি, মেঘনা, মহানগর, সোনার বাংলা, পাহাড়ীকা, উদয়ন এবং বিজয়। এছাড়া এবার ঈদে রেলওয়ের পূর্বাঞ্চলের যাত্রীদের যাতায়াতের জন্য বরাদ্দ রাখা হয়েছে এক জোড়া বিশেষ ট্রেন। ট্রেন দুটি চট্টগ্রাম-চাঁদপুর রুটে চলাচল করবে। সবগুলো রুটে প্রতিদিন ১২ হাজার টিকিট বিক্রি করা হবে।

প্রথম দিনে অগ্রিম টিকিট প্রত্যাশীরা রাত থেকেই লাইনে অবস্থান নেন। টিকিট বিক্রি শুরু হয় সকাল ৯টায়।

চট্টগ্রাম থেকে প্রতিদিন মোট ১২ হাজার টিকিট বিক্রি করা হবে। এরমধ্যে রেলওয়ের অ্যাপসে ৫০ শতাংশ অর্থাৎ ৬ হাজার টিকিট এবং বাকি ৬ হাজার টিকিট রেল স্টেশন থেকে দেয়া হবে। একজন যাত্রী একসঙ্গে সর্বোচ্চ ৪টি টিকিট কিনতে পারবেন। এ জন্য অবশ্যই জাতীয় পরিচয়পত্র লাগবে।

অন্যদিকে রাজধানী ঢাকায় এবার কমলাপুরসহ মোট পাঁচটি ভিন্ন স্থান থেকে রেলের টিকিট বিক্রি করা হচ্ছে। কমলাপুরে  রংপুর, রাজশাহী ও খুলনা অঞ্চলে চলাচলকারী ১২ ট্রেনের টিকিট, বিমানবন্দর স্টেশন থেকে চট্টগ্রাম ও নোয়াখালীগামী সব আন্তনগর ট্রেন, তেজগাঁও স্টেশন থেকে ময়মনসিংহ ও জামালপুরগামী সব আন্তনগর ট্রেন, বনানী স্টেশন থেকে নেত্রকোনাগামী মোহনগঞ্জ ও হাওড় এক্সপ্রেস ট্রেন এবং ফুলবাড়িয়া (পুরাতন রেলভবন) থেকে সিলেট ও কিশোরগঞ্জগামী সব আন্তনগর ট্রেনের টিকিট বিক্রি একই সময়ে শুরু হয়েছে।

আগামী ২৩ মে দেওয়া হবে ১ জুনের টিকিট, ২৪ মে দেওয়া হবে ২ জুনের টিকিট, ২৫ মে দেওয়া হবে ৩ জুনের টিকিট এবং ২৬ মে দেওয়া হবে ৪ জুনের টিকিট। ফেরত যাত্রীদের জন্য ২৯ মে দেওয়া হবে ৭ জুনের টিকিট, একইভাবে ৩০ ও ৩১ মে এবং ১ ও ২ জুন দেওয়া হবে যথাক্রমে ৮, ৯, ১০ ও ১১ জুনের টিকিট।

মন্তব্য



সাতদিনের সেরা