kalerkantho

সোমবার। ১৭ জুন ২০১৯। ৩ আষাঢ় ১৪২৬। ১৩ শাওয়াল ১৪৪০

মারা গেছে সোনাগাজী থেকে উদ্ধার হওয়া চিত্রা হরিণ

সোনাগাজী প্রতিনিধি   

২২ মে, ২০১৯ ০৫:০৫ | পড়া যাবে ২ মিনিটে



মারা গেছে সোনাগাজী থেকে উদ্ধার হওয়া চিত্রা হরিণ

ছবি: কালের কণ্ঠ

সোনাগাজীর উপকূলীয় চরচান্দিয়া ইউনিয়নের লোকালয় থেকে মঙ্গলবার দুপুরে উদ্ধারকৃত চিত্রা হরিণটি সুচিকিৎসার অভাবে মারা গেছে। মঙ্গলবার সন্ধ্যা সাড়ে ৭টার দিকে ফেনী সদর উপজেলার কাজীরবাগ ইকোপার্কে অবমুক্ত করার কয়েক ঘণ্টা পর হরিণটি মারা যায়। সোনাগাজী উপজেলা রেঞ্জ কর্মকর্তা জসিম উদ্দিন মুন্সী এই তথ্য নিশ্চিত করেছেন।

উপজেলা রেঞ্জ কর্মকর্তা জসিম উদ্দিন মুন্সী জানান, মঙ্গলবার (২১ মে) দুপুরে উপজেলার চরচান্দিয়া ইউনিয়নের মোহাম্মদপুরে এলাকাবাসী হরিণটিকে আটক করেন। 

খবর পেয়ে সোনাগাজী মডেল থানা পুলিশ হরিণটি উদ্ধার করে থানা হেফাজতে নিয়ে আসেন। স্থানীয় এলাকাবাসী আটক করার সময় চিত্রা হরিণটি সামান্য আহত হয়। আহত হরিণটি চিকিৎসা ও অবমুক্ত করা জন্য বিকাল সাড়ে ৩টার দিকে সোনাগাজী মডেল থানার অফিসার ইনচার্জ মঈন উদ্দিন আহমেদের উপস্থিতিতে বন বিভাগকে বুঝিয়ে দেওয়া হয়।

হরিণটি বুঝে নেওয়ার পর দ্রুত জেলা প্রাণি সম্পদ অফিসে চিকিৎসার জন্য নেওয়া হয়। কিন্তু জেলা প্রাণি সম্পদ অফিসে বিশেষজ্ঞ চিকিৎসকের জন্য দীর্ঘ সময় অপেক্ষা করেও কোনো বিশেষজ্ঞ চিকিৎসক না পাওয়ায় প্রাথমিক চিকিৎসা দিয়ে হরিণটি অবমুক্ত করার জন্য নিয়ে যাওয়া হয়। ফলে প্রায় ৬০ কেজি ওজনের আহত হরণটি রাতেই সুচিকিৎসার অভাবে মারা যায়।

বন বিভাগের ফেনী সদর উপজেলা রেঞ্জ কর্মকর্তা তপন চন্দ্র দাস বলেন, হরিণটা ধরার সময় কিছুটা আহত হয়ে ছিল। এর পর দীর্ঘ সময় সোনাগাজী মডেল থানায় চিকিৎসাহীন অবস্থা পড়ে রয়েছিল। বিকেলে ইকোপার্কে এনে ছাড়া হলে হরিণটি মাটিতে লুটিয়ে পড়া থেকে আর উঠতে পারেনি। সন্ধ্যা সাড়ে ৭টার দিকে হরিণটি মারা যায়।

হরিণটির মৃতদেহ ময়নাতদন্তের জন্য বন বিভাগের জিম্মায় রাখা হয়েছে। আজ বুধবার সকালে হরিণটির ময়নাতদন্ত করা হবে। 

সোনাগাজী উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা মো. সোহেল পারভেজ সাংবাদিকদের বলেন, হরিণটির মৃত্যুর জন্য কারো দায়িত্ব অবহেলা আছে কিনা তা খতিয়ে দেখা হবে।

মন্তব্য



সাতদিনের সেরা