kalerkantho

বুধবার । ২২ জানুয়ারি ২০২০। ৮ মাঘ ১৪২৬। ২৫ জমাদিউল আউয়াল ১৪৪১     

গোপালগঞ্জে ছাত্রীকে ভুল ইঞ্জেকশন দেওয়ার অভিযোগ

গোপালগঞ্জ প্রতিনিধি   

২২ মে, ২০১৯ ০৩:০৪ | পড়া যাবে ১ মিনিটে



গোপালগঞ্জে ছাত্রীকে ভুল ইঞ্জেকশন দেওয়ার অভিযোগ

গোপালগঞ্জে ‘২৫০ শয্যার জেনারেল হাসপাতালে’ বিশ্ববিদ্যালয় পড়ুয়া এক ছাত্রীকে ভুল ইঞ্জেকশন দেওয়ার অভিযোগ উঠেছে। অভিযোগ অনুযায়ী, ভুল ইঞ্জেকশন দেওয়ায় ওই ছাত্রী জ্ঞান হারিয়ে ফেলেন। পরে চিকিৎসকরা তাঁকে ঢাকায় নেওয়ার পরামর্শ দেন।

ভুক্তভোগী মরিয়ম সুলতানা মুন্নি গোপালগঞ্জের বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমান বিজ্ঞান ও প্রযুক্তি বিশ্ববিদ্যালয়ে সমাজকল্যাণ বিভাগে পড়েন। তিনি গোপালগঞ্জ সদর উপজেলার চন্দ্রদিঘলিয়া গ্রামের মোশারফ হোসেনের মেয়ে।

মোশারফ হোসেনের ভাষ্য, মুন্নির পিত্তথলিতে পাথর হয়েছে। গতকাল সকালে তার অস্ত্রোপচার হওয়ার কথা ছিল। কিন্তু ভোর সাড়ে ৫টার দিকে হাসপাতালে নার্স রাশিদা তাকে গ্যাস্ট্রিকের পরিবর্তে অজ্ঞান করার ইঞ্জেকশন পুশ করেন। এতে মুন্নি জ্ঞান হারিয়ে ফেলে। ঘটনার পর থেকে ওই নার্স পলাতক রয়েছেন।

হাসপাতালের পরিচালক ডা. ফরিদুল ইসলাম বলেন, ‘একজন সিনিয়র নার্স কিভাবে ভুল ইঞ্জেকশন পুশ করল—এটা বোধগম্য নয়। এ বিষয়ে একটি তদন্ত কমিটি করা হবে।’

মন্তব্য



সাতদিনের সেরা