kalerkantho

সোমবার । ২৪ জুন ২০১৯। ১০ আষাঢ় ১৪২৬। ২০ শাওয়াল ১৪৪০

ছাত্রলীগ নেত্রীকে পদ পাইয়ে দিতে ‘উপমন্ত্রী’ সেজে ফোন, প্রতারক গ্রেপ্তার

নিজস্ব প্রতিবেদক, চট্টগ্রাম   

২২ মে, ২০১৯ ০২:৪৫ | পড়া যাবে ৩ মিনিটে



ছাত্রলীগ নেত্রীকে পদ পাইয়ে দিতে ‘উপমন্ত্রী’ সেজে ফোন, প্রতারক গ্রেপ্তার

ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয় ছাত্রলীগ নেত্রী শ্রাবণী দিশাকে ছাত্রলীগের কেন্দ্রীয় কমিটির পদ পাইয়ে দেওয়ার লোভ দেখিয়ে ‘শিক্ষা উপমন্ত্রী’ সেজে প্রতারণা করেছেন এক যুবক। মো. ওসমান নামের (২৬) ওই যুবককে সোমবার গভীর রাতে চট্টগ্রামের ডবলমুরিং থানার ঝর্ণাপাড়া এলাকা থেকে গ্রেপ্তার করেছে পুলিশ। গ্রেপ্তার ওসমান খাগড়াছড়ি জেলার মানিকছড়ি উপজেলার বাসিন্দা। তিনি চট্টগ্রাম মহানগরীর ডবলমুরিং থানার ঝর্ণাপাড়া এলাকায় থাকতেন। 

ঘটনার বিষয়ে নগর পুলিশের অতিরিক্ত উপকমিশনার (দক্ষিণ) শাহ মো. আবদুর রউফ বলেন, কদিন আগে শিক্ষা উপমন্ত্রীর ব্যক্তিগত সহকারী নাজিউর রহমান শিকদার অনিক থানায় অভিযোগ করেন, ০১৮১২৭৬১৭০৩ ও ০১৭৮৫৬০৮৭০৫ নম্বর ব্যবহার করে শিক্ষা উপমন্ত্রীর নাম ভাঙিয়ে বিভিন্ন ব্যক্তিকে হুমকি ও টাকা দাবি করছে অজ্ঞাতপরিচয় ব্যক্তি। 

এই অভিযোগের সূত্র ধরে তদন্ত শুরু করে কোতোয়ালি থানার পুলিশ। তদন্ত পর্যায়ে পুলিশ জানতে পারে, ওই নম্বর দুটি ব্যবহার করছেন ওসমান। তিনি নিজেকে উপমন্ত্রীর ব্যক্তিগত সহকারী পরিচয় দিয়ে প্রতারণা করছেন। 

ফেসবুক আইডি থেকে ওসমান নিজেকে নওফেলের ছোট ভাই পরিচয় দিয়ে বিভিন্ন ব্যক্তির সঙ্গে বন্ধুত্ব করেন। ভিন্ন ভিন্ন কণ্ঠে কথা বলতে পারেন ওসমান। তিনি নিজের ইমো আইডিতে শিক্ষা উপমন্ত্রী নওফেলের ছবি ও নাম ব্যবহার করেছেন, যাতে কেউ নম্বরটি সেভ করলে নওফেলের নাম ও ছবি ভেসে ওঠে।

ওসমান গত ১৮ মে ০১৮১২৭৬১৭০৩ নম্বর থেকে উপমন্ত্রী নওফেল পরিচয় দিয়ে ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের ছাত্রলীগ নেত্রী শ্রাবণী দিশাকে ফোন করে কমিটিতে পদ পাইয়ে দেওয়ার আশ্বাস দিয়েছিল। এ বিষয়ে গত রবিবার ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয় সাংবাদিক সমিতি কার্যালয়ে সংবাদ সম্মেলন করেন দিশা। ওই সংবাদ সম্মেলনে তাঁকে অপহরণের চেষ্টা হয়েছিল বলে অভিযোগ করা হয়। এ ঘটনায় শাহবাগ থানায় একটি সাধারণ ডায়েরি করেন দিশা। 

দিশার সঙ্গে যোগাযোগ কিভাবে—পুলিশের এমন প্রশ্নের জবাবে গ্রেপ্তার ওসমান পুলিশকে জানান, একটি ফেসবুক আইডি থেকে নিজেকে শিক্ষা উপমন্ত্রী নওফেলের ছোট ভাই পরিচয় দিয়ে ফ্রেন্ড রিকোয়েস্ট পাঠিয়েছিলেন বদরুন্নেসা কলেজের ছাত্রলীগ নেত্রী রিমার কাছে। রিমা বন্ধুত্বের আহ্বানে সাড়া দেওয়ার পর ওসমান নিজকে নওফেল পরিচয় দিয়ে কয়েকবার কথা বলেন রিমার সঙ্গে। 

এদিকে ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ে ছাত্রলীগের কেন্দ্রীয় কমিটিতে পদবঞ্চিতদের ওপর হামলার পর রোকেয়া হল ছাত্রলীগের সাধারণ সম্পাদক শ্রাবণী তাঁর ফেসবুকে একটি স্ট্যাটাস দেন। সেটি দেখে ওসমান নওফেলের ছোট ভাই সেজে ম্যাসেঞ্জারে রিমাকে জানান, শ্রাবণীর ওপর হামলার ঘটনায় নওফেল ব্যথিত হয়েছেন। একই সময় রিমাকে শ্রাবণীর বাসায় গিয়ে নওফেলের সঙ্গে কথা বলিয়ে দেওয়ার পরামর্শ দেন। এই পরামর্শ ধরেই ছাত্রলীগ নেত্রী রিমা গিয়েছিলেন শ্রাবণীর বাসায়। পরে ০১৮১২৭৬১৭০৩ নম্বর মোবাইলের মাধ্যমে ‘উপমন্ত্রী’ সেজে কথা বলেন ওসমান। 

মন্তব্য