kalerkantho

মঙ্গলবার। ১৮ জুন ২০১৯। ৪ আষাঢ় ১৪২৬। ১৪ শাওয়াল ১৪৪০

ফেনসিডিলসহ জিআরপি সদস্য আটক, পরস্পরবিরোধী বক্তব্য

যশোর অফিস   

২১ মে, ২০১৯ ২২:৪০ | পড়া যাবে ২ মিনিটে



ফেনসিডিলসহ জিআরপি সদস্য আটক, পরস্পরবিরোধী বক্তব্য

যশোর রেল পুলিশের (জিআরপি) সদস্য মোস্তাকিমের কাছ থেকে ৫৪ বোতল ফেনসিডিল উদ্ধারের ঘটনায় পরস্পর বিরোধী বক্তব্য পাওয়া যাচ্ছে।

র‌্যাবের দাবি, ওই ফেনসিডিল জিআরপি সদস্যের কাছ থেকে উদ্ধার হয়েছে। আর জিআরপি বলছে, তিনি ওই সময় অন ডিউটিতে ছিলেন।

আজ মঙ্গলবার বিকেলে ফেনসিডিল উদ্ধারের এই ঘটনায় রাজশাহী থেকে খুলনাগামী মহানন্দা ট্রেনটি প্রায় দুই ঘণ্টা যশোর স্টেশনে আটকে ছিল।

র‌্যাব-৬ যশোর ক্যাম্পের উপ-অধিনায়ক মেজর আশরাফ সাংবাদিকের বলেছেন, তাদের কাছে খবর ছিল- ট্রেনে দায়িত্বরত অবস্থায় একজন জিআরপি সদস্য ফেনসিডিল বহন করছেন।

এ ঘটনার প্রেক্ষিতে র‌্যাব সদস্যরা যশোর রেল স্টেশনে অবস্থান নেন। বিকেল ৫টা ৫ মিনিটে মহানন্দা ট্রেনটি যশোর স্টেশনে থামে। এরপর ট্রেনের শেষবগিতে তল্লাশি চালিয়ে জিআরপি সদস্য মোস্তাকিমের কাছ থেকে ৫৪ বোতল ফেনসিডিল উদ্ধার করা হয়। তিনি সেই সময় পুলিশের পোশাক পরিহিত অবস্থায় ছিলেন, সে কারণে তাকে জিআরপি যশোর ফাঁড়িতে সোপর্দ করা হয়।

যোগাযোগ করা হলে যশোর জিআরপি ফাঁড়ির ইনচার্জ এসআই তরিকুল ইসলাম বলেন, মোস্তাকিম ট্রেনে অন ডিউটিতে ছিলেন এবং তার কাছ থেকে ফেনসিডিল উদ্ধার করা হয়নি। তারপরেও তাকেসহ উদ্ধার ফেনসিডিল নিয়ে খুলনা জিআরপি থানায় যাচ্ছি। সেখানে ঊর্ধ্বতন কর্মকর্তারা যা করার করবেন।

খুলনা জিআরপি থানার ওসি ওসমান গণি সাংবাদিকদের জানান, র‌্যাবের সঙ্গে রেল পুলিশের ফেনসিডিল উদ্ধার ঘটনায় ঝামেলা হয়েছে শুনেছি। তারা এখেনা খুলনায় পৌঁছেনি। বিষয়টি গভীরভাবে খতিয়ে দেখা হচ্ছে। বিষয়টি ঊর্ধ্বতন কর্মকর্তাদের অবহিত করা হয়েছে।

এ বিষয়ে যশোর রেল স্টেশনের সহকারী স্টেশন মাস্টার কে এম রিয়াদ হাসান বলেন, মহানন্দায় ফেনসিডিল বহন করা হচ্ছে- মর্মে র‌্যাব সদস্যরা ট্রেনে অভিযান চালান। স্টেশনে ট্রেনটি ১০ মিনিট থাকার কথা থাকলেও প্রায় দুই ঘণ্টা পর ৭টা ১৫ মিনিটে মহানন্দা যশোর ছেড়ে যায়।

মন্তব্য



সাতদিনের সেরা