kalerkantho

বৃহস্পতিবার । ২৭ জুন ২০১৯। ১৩ আষাঢ় ১৪২৬। ২৩ শাওয়াল ১৪৪০

ভাগ্নের লাঠির আঘাতে খালা নিহত, আটক ৪

ধুনট (বগুড়া) প্রতিনিধি   

২১ মে, ২০১৯ ১৯:৫৬ | পড়া যাবে ২ মিনিটে



ভাগ্নের লাঠির আঘাতে খালা নিহত, আটক ৪

বগুড়ার শেরপুর উপজেলায় জমিজমা নিয়ে বিরোধের জের ধরে ভাগ্নের লাঠির আঘাতে খালা নাছিমা বেগম (৩২) নিহত হয়েছেন। নাছিমা খাতুন উপজেলার আয়রা গ্রামের জাহাঙ্গীর আলমের স্ত্রী। মঙ্গলবার দুপুরের দিকে উপজেলার তালতা গ্রামে এ ঘটনা ঘটে।

এ ঘটনায় জড়িত থাকার অভিযোগে তালতা শেখপাড়া গ্রামের আব্দুল খালেকের স্ত্রী আঞ্জুয়ারা বেগম (৪৫), তার ছেলে রাজু আহমদে (২২), মেয়ে খালেদা খাতুন (১৫) ও রাজু আহমেদের স্ত্রী সানজিদা বেগমকে (২০) আটক করেছে পুলিশ। নিহত নাছিমার মরদেহ উদ্ধার করে ময়নাতদন্তের জন্য বগুড়া শহীদ জিয়াউর রহমান মেডিকেল কলেজ (শজিমেক) হাসপাতাল মর্গে পাঠানো হয়েছে। 

স্থানীয় সূত্রে জানা যায়, নাসিমা বেগম ও আঞ্জুয়ারা বেগমের বাবার নাম নবীর হোসেন। তিনি বেশ আগেই মারা যান। তাদের পৈত্রিক বসতবাড়ি তালতা শেখপাড়া গ্রামে। বিয়ে হওয়ার সুবাধে নাসিমা বেগম স্বামী জাহাঙ্গীর আলমের সাথে  আয়রা পুরাতন পাড়া গ্রামে বসবাস করেন। আর আঞ্জুয়ারা স্বামী আব্দুল খালেক ও সন্তানাদি নিয়ে তালতা শেখপাড়া গ্রামেই বসবাস করেন। পৈত্রিক সূত্রে নাসিমা বেগম দুই শতাংশ জমির দাবি করেন। কিন্তু তার বোন আঞ্জুয়ারা বেগম সেই জমির দখল দিচ্ছিলেন না। এ বিষয় নিয়ে মঙ্গলবার দুপুরের কথা কাটাকাটির এক পর্যায়ে আঞ্জুয়ারার ছেলে রাজু আহম্মেদের লাঠির আঘাতে ঘটনাস্থলেই নাছিমা মারা যায়।

শেরপুর থানার পুলিশ পরিদর্শক (ওসি তদন্ত) বুলবুল ইসলাম ঘটনার সত্যতা নিশ্চিত করে জানান, এ ঘটনায় চারজনকে আটক করা হয়েছে। নিহতের মরদেহ উদ্ধার করে ময়না তদন্তের জন্য শজিমেক মর্গে পাঠানো হয়েছে। এই সংবাদ লেখা অবধি মামলার প্রস্তুতি চলছে।

মন্তব্য



সাতদিনের সেরা